শ্রীলঙ্কার পরিস্থিতি এড়ানো গেছে, দাবি পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রীর

আপডেট: আগস্ট ১১, ২০২২, ১২:৫৫ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


শ্রীলঙ্কার মতো পরিস্থিতি সফলভাবে এড়িয়েছে পাকিস্তান। তাছাড়া দেশটির অর্থনীতি এখন সঠিক পথে এগোচ্ছে। পাকিস্তানের অর্থমন্ত্রী মিফতাহ ইসমাইল এ দাবি করেছেন। বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) জিও নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

সিএনবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মিফতাহ ইসমাইল বলেন, পাকিস্তানের শ্রীলঙ্কার পথে এগিয়ে যাওয়া ও ঋণখেলাপিতে পরিণত হওয়ার মতো পরিস্থিতির মধ্যে পড়ার বিষয়ে গুরুতর উদ্বেগ ছিল। তবে কিছু ক্ষেত্রে আমরা উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন আনতে সক্ষম হয়েছি। তাই আমি (মিফতাহ ইসমাইল) মনে করি শ্রীলঙ্কার মতো পরিস্থিতি আমরা এড়িয়ে যেতে সক্ষম হয়েছি।

অর্থমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তান এখন আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) প্রোগ্রামে রয়েছে। তাছাড়া এরই মধ্যে একটি স্টাফ-লেভেল চুক্তিও সই হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, আগস্টের শেষ নাগাদ দেশটির জন্য অর্থ ছাড় করবে দাতা সংস্থাটি।

মিফতাহ ইসমাইল বলেন, বর্তমানে দেশ সঠিক পথে এগোচ্ছে। সুদের হার বাড়ায় চাহিদা কমেছে। তাছাড়া বিভিন্ন পদক্ষেপে কমেছে আমদানির পরিমাণ। এদিকে গত সপ্তাহ থেকে ডলারের বিপরীতে পাকিস্তানি রুপির মূল্য প্রায় সাত শতাংশ বেড়েছে।

অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, সরকারের কঠোর সিদ্ধান্ত ও পদক্ষেপ দেশের জনগণকে মারাত্মকভাবে প্রভাবিত করেছে, তবে অর্থনীতিকে ধ্বংসের হাত থেকে বাঁচাতে সরকারের কাছে অন্য কোনো উপায় ছিল না।

জানা গেছে, ১৯৪৮ সালে স্বাধীনতা লাভের পর সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতির সম্মুখীন হয়েছে শ্রীলঙ্কা। দেশটির অর্থনীতি সম্পূর্ণভাবে ভেঙে পড়েছে। আন্দোলনের মুখে ক্ষমতা ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন রাজাপাকসে পরিবার।

গোতাবায়া রাজাপাকসে পালিয়েছেন দেশ ছেড়ে। করোনা মহামারির পর রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ফলে বিশ্বজুড়ে সংকট তৈরি হয়েছে। হু হু করে বাড়ছে মূল্যস্ফীতির হার। এমন পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে দেশগুলো।
তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ