সন্তানকে হত্যাচেষ্টার পর গৃহবধূর আত্মহত্যা

আপডেট: নভেম্বর ২৬, ২০১৬, ১২:০৮ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক



রাজশাহীর পবায় শাকিলা বেগম (২০) নামে এক গৃহবধূ শিশু সন্তানকে হত্যাচেষ্টার পর আত্মহত্যা করেছেন। গতকাল শুক্রবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। আহত শিশু আঁখিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ওই গৃহবধূ উপজেলার পারিলা ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর গ্রামের আখিরুল ইসলামের স্ত্রী।
স্থানীয়রা জানিয়েছেন, গতকাল দুপুরে টাকা নিয়ে শাকিলা বেগমের সঙ্গে স্বামী আখিরুলের বাকবিত-া হয়। এরপর গৃহবধূ শাকিলা তার তিনমাস বয়সি শিশুর কপাল থেকে মুখম-লের নিচ পর্যন্ত ব্লেড দিয়ে কেটে দেয়। এ ঘটনার পর শাকিলা ঘরের ভেতর তীরের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন।
এর কিছুক্ষণ পর পরিবারের সদস্যদের সন্দেহ হলে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। আর শিশু আঁখির চিকিৎসার জন্য রামেক হাসপাতালে পাঠায়। তবে হাসপাতালের সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ওই শিশু আশঙ্কামুক্ত। একারণে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।
নিহতের স্বামী আখিরুল ইসলামের দাবি, ব্লেড দিয়ে শিশু আাঁখিকে হত্যা চেষ্টার পর শাকিলা আত্মহত্যা করেছেন। তবে পবা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি, তদন্ত)  হাসমত আলী জানিয়েছেন, আখিরুলের এ দাবির সঙ্গে একমত নন নিহত গৃহবধূর বাবা সাইফুল ইসলাম। তিনি বিষয়টি নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন।
ওসি হাসমত আলী বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ কিংবা মামলা করলে তা গ্রহণ করা হবে।