সন্ত্রাসী হামলার হুমকিতে মেলবোর্ন টেস্ট!

আপডেট: ডিসেম্বর ২৪, ২০১৬, ১২:১৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


সন্ত্রাস। বিশ্বের সবচেয়ে বড় একটি সমস্যা এখন। কিন্তু ক্রিকেটের সাথে এর বিরোধ কোথায়? খেলার সাথে কোথায় সংঘাত? বছরের মাঝামাঝিতে প্যারিসে সন্ত্রাসী হামলায় কতো মানুষ প্রাণ হারাল। তখন সন্ত্রাসীদের টার্গেট ছিল প্যারিসের স্টেডিয়ামও। যেখানে জার্মানি-ফ্রান্স খেলা হচ্ছিল। এখন খবর মিলছে, মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড (এমসিজি) নিয়ে। হ্যাঁ, সোমবার ওখান পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়া বক্সিং ডে টেস্ট শুরু। তার আগে মেলবোর্নে সন্ত্রাসী হামলার পরকিল্পনার কথা জানা গেল। তাতে গ্রেফতার করা হয়েছে ৭ জনকে। কড়া নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে এমসিজিকে।
আসলে এমসিজি মূল টার্গেটে, এমন খবর নেই। কিন্তু খবর পাওয়া গেছে শহরটির ট্রেন স্টেশনে প্রাণঘাতী হামলা হবে। বড় দিনকে সামনে রেখে অনেক লোক জমায়েত হবে। ওটাকেই টার্গেটে নিয়েছে সন্ত্রাসীরা। মেলবোর্নের প্রধান পুলিশ কমিশনার গ্রাহাম অ্যাস্টন জানিয়েছেন, তারা এই পরিকল্পনা বানচাল করতে পেরেছেন। তারপরও যেসব জায়গায় বড় বড় ইভেন্ট হবে বড় দিনকে নিয়ে সেসব জায়গায় বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হবে। কিছুদিন আগেও সন্ত্রাসীরা অস্ট্রেলিয়ায় হামলা করে খবরে এসেছিল।
এমসিজি বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রিকেট স্টেডিয়াম। লাখো মানুষ এক সাথে খেলা দেখতে পারেন ওখানে। বড় দিনের ছুটি বলে অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান ম্যাচেও সমর্থক হবে খুব। প্রথম দিনে ৬০০০০ দর্শক আসার কথা। স্টেডিয়ামটি তাই ঝুঁকিপূর্ণ বলেই বিবেচনায়। পুলিশ প্রধান বলেছেন, ‘বক্সিং ডে টেস্টও অনেক বড় ইভেন্ট। আমরা নিশ্চিত করতে চাই যে এসব নিয়ে কোনো ঝামেলা না হয়। সতর্কতা হিসেবে সব ব্যবস্থাই নিচ্ছি।’
মেলবোর্ন পুলিশ কর্তৃপক্ষ এর মধ্যে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট বোর্ডের সাথে কথা বলেছেন। তারা এটা নিশ্চিত করেছে যে, বক্সিং ডে টেস্টকে সামনে রেখে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট জিতে ৩ ম্যাচের সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে আছে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া।-পরিবর্তনডটকম

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ