সন্ত্রাস বন্ধে সহযোগিতা চাইলেন প্রধান বিচারপতি

আপডেট: জুলাই ৮, ২০১৭, ১২:৩১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


সন্ত্রাসকে রুখে দিতে প্রশাসন ও বিচারকদের সহযোগিতা কামনা করেছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। শুক্রবার কুমিল্লার কাপড়িয়া পট্টিতে পুনর্নির্মিত শ্রী শ্রী চাঁন্দমনি রক্ষাকালী মন্দির উদ্বোধনকালে তিনি একথা বলেন। পুলিশ, প্রশাসন ও জনগণ সহযোগিতা করলে দেশ থেকে সন্ত্রাস উঠে যাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
“আপনারা জেলা ও দায়রা জজ, পুলিশ সুপার ও জেলা প্রশাসক তিনজন এক হয়ে সহযোগিতা করেন, তাহলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস প্রত্যেকটি জেলার আইন-শৃঙ্খলার উন্নতি হবে।”
সরকার ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি সরকার সহ্য করছে না বলেও প্রধান বিচারপতি মন্তব্য করেন।
শান্তি-শৃঙ্খলা যাতে বজায় থাকে এবং প্রত্যেকে যাতে নিজ নিজ ধর্ম পালন করতে পারে সেটাই করবে ধর্ম রিপেক্ষতা। বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক ও সম্পূর্ণ ধর্ম নিরপেক্ষ দেশ বলে তিনি উল্লেখ করেন।
“বাংলাদেশে কোনোদিনই ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি সহ্য করে না। বর্তমান সরকার তো কোনোমতেই সহ্য করছে না। আপনারা সব ধর্মালম্বীরা নির্ভয়ে নিজ নিজ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে যান।”
অনুষ্ঠানে ভারপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ বেগম জেবুন্নেছার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক নির্বাচন কমিশনার ছহুল হুসাইন, সদ্য বিদায়ী জেলা ও দায়রা জজ দেওয়ান মো. সফিউল্লাহ।
এছাড়া সুপ্রিম কোর্টের হাই কোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার অরুণাভ চক্রবর্ত্তী ও প্রধান বিচারপতির একান্ত সচিব মোহাম্মদ আনিসুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ