সবচেয়ে নিরাপদ অপারেটিং সিস্টেম কি?

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ

এ.এস.এম. শাহরিয়ার জাহান, তথ্য-প্রযুক্তিবিদ:


আমরা এখনো প্রযুক্তিগত নিরাপত্তা নিয়ে খুব একটা মাথা ঘামাই না যতক্ষণটা কোনো ঝামেলায় জড়িয়ে যাই। যতক্ষণ না প্রয়োজন হচ্ছে ততক্ষণ নিরাপত্তা ও রক্ষণাবেক্ষণের প্রশ্নে বারতি বা রুটিনবদ্ধ কাজগুলো নিয়মিত করায় আমাদের বিরাট আলসেমি। আর এমতাবস্থায় যদি কাউকে প্রশ্ন করা হয় সবচেয়ে নিরাপদ অপারেটিং সিস্টেম কোনটি বা আপনার অপারেটিং সিস্টেমটি কি নিরাপদ – তবে সে অবাক হয়ে তাকাবে। বড়জোড় একটা পাসওয়ার্ড দিয়ে রাখা মানেই ব্যক্তিগত নিরাপত্তার সকল দায়িত্ব বুঝি পালন করা শেষ। অথচ অপারেটিং সিস্টেমের উপরে প্রযুক্তি জগতের নিরাপত্তার অনেক বড় অংশ নির্ভর করে। প্রযুক্তি দুনিয়ার নিরাপত্তার অনেকগুলো বিষয় নিয়ে লেখা হলেও অপারেটিং সিস্টেমের কথা এখনো কিছুই বলা হয়নি।

সবচেয়ে নিরাপদ অপারেটিং সিস্টেমগুলোর কথা যদি বলতে হয় তো মূলতঃ প্রচলিত অপারেটিং সিস্টেমগুলোর নামই ঘুরে ফিরে চলে আসবে। কারণ অপারেটিং সিস্টেম প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলো সবসময়ই তাদের পণ্যের গুণগত মান উন্নত করার প্রক্রিয়া চালিয়ে যাচ্ছে। নিরাপত্তার জন্য লিনাক্সের ডিস্ট্রিবউশনগুলো অনেক নির্ভরযোগ্য। এছাড়া অ্যাপল কোম্পানীর ম্যাকওএস বা আমাদের সবার পরিচিত মাইক্রোসফট কোম্পানীর অপারেটিং সিস্টেম হালের উইন্ডোজ ১১ একেবারে পিছিয়ে নেই। মাইক্রোসফট তো উইন্ডোজ১১-কে তাদের সবচাইতে সিকিওর অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে দাবী করছে।

তবে এটা সবসময়ই মনে রাখতে হবে, যে কোনো OS-কেই ক্র্যাক করা অসম্ভব নয়। যে কোন সময় যে কোন নিরাপত্তা ত্রুটিকে ব্যবহার করে হ্যাকাররা সিস্টেমে অনুপ্রবেশ করতে পারে, ম্যালওয়্যার দিয়ে আক্রান্ত করতে পারে, ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করতে পারে বা এমনকি OS-ও ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। তবে একটি ভালো মানের OS আপনার ব্যক্তিগত তথ্য নিরাপদ রাখতে যথেষ্ট সাহায্য করতে পারে। তবে এজন্য OS-টি ব্যবহারের সঠিক পদ্ধতিগুলো সম্পর্কে জানা থাকা প্রয়োজন।