সরকারি হাসপাতালে হোমিওপ্যাথির আলাদা বিভাগ খোলার প্রস্তাব মন্ত্রনালয়ে : বাদশা

আপডেট: এপ্রিল ১১, ২০১৭, ১২:২৮ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


বিশ্ব হোমিও প্যাথি দিবসের আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন সাংসদ ফজলে হোসেন বাদশা- সোনার দেশ

সাংসদ ফজলে হোসেন বাদশা বলেছেন, দেশের প্রতিটি সরকারি হাসপাতালে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার জন্য আলাদা ওয়ার্ড করার পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। এ জন্য সরকারি হাসপাতালে আলাদা ওয়ার্ড রাখার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সেটি বিবেচনায় নিয়েছে।
গতকাল সোমবার বেলা ১২টায় রাজশাহী হোমিওপ্যাথি কলেজের ঋত্বিক ঘটক মিলনায়তনে বিশ্ব হোমিওপ্যাথি দিবস, ২০১৫ সালের ইন্টার্নি ব্যাচের বিদায় এবং হোমিওপ্যাথির জনক ডা. হ্যানিম্যানের ২৬২তম জন্ম জয়ন্তী উপলক্ষে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।
সভায় সভাপতিত্ব করেন, রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও হোমিওপ্যাথি কলেজের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পারভেজ রায়হান।
সাংসদ ফজলে হোসেন বাদশা বলেছেন, হোমিওপ্যাথি পৃথিবীতে একটি স্বীকৃত চিকিৎসা ব্যবস্থা। বর্তমান সরকার হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকদের চিকিৎসক হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। এখন প্রতিটি সরকারি মেডিকেল কলেজে একজন করে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক রয়েছেন।
রাজশাহী হোমিওপ্যাথি কলেজের ম্যানেজিং কমিটি নিয়ে বিগত দিনে বিশৃংখলা ছিল। এখন সেটি কাটিয়ে উঠেছে। শীঘ্রই একটি শক্তিশালী ম্যানেজিং কমিটি করে ধাপে ধাপে এই হোমিও কলেজের উন্নয়ন করা হবে বলেও সাংসদ বাদশা তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ