সাকিবের পরামর্শ মেনেই সাফল্য পাচ্ছেন শহীদ

আপডেট: নভেম্বর ১৭, ২০১৬, ১১:৩৯ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক
বাংলাদেশ দলে টেস্ট বোলার হিসেবে অটোমেটিক চয়েজ মোহাম্মদ শহীদ। কিন্তু ইনজুরির কারণে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সর্বশেষ দুটি টেস্টে তার খেলা হয় নি। তবে সাইড স্ট্রেইনের ইনজুরি কাটিয়ে বিপিএল দিয়েই ফিরেছেন তিনি। ফিরেই চলতি আসরে ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে দুর্দান্ত খেলে চলেছেন। সঙ্গে টি-টোয়েন্টি এই ক্রিকেট দারুণ উপভোগও করছেন। এমনকি অধিনায়ক সাকিব যেমন পরিকল্পনা ধরিয়ে দিচ্ছেন, সেভাবেই বোলিং করছেন তিনি। আর তাতেই নাকি সাফল্য ধরা দিচ্ছে।
বৃহস্পতিবার চিটাগং ভাইকিংসকে হারাতে শহীদ বল হাতে গতির ঝড় তুলেছিলেন জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। ৪ ওভার বোলিং করে ২৩ রান খরচায় ভাইকিংসের গুরুত্বপূর্ণ তিনটি উইকেট তুলে নেন। ফলশ্রুতিতে ম্যাচ সেরার পুরস্কারও পেয়েছেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে এসে সাফল্যের রহস্য উন্মোচন করতে গিয়ে শহীদ বলেছেন, ‘বিপিএল খুব ভালো ভাবে উপভোগ করছি। আর উপভোগের পাশাপাশি বোলিংটাও ভালো হচ্ছে। মূলত উইকেট যেমন ছিল, সেভাবেই বোলিং করার চেষ্টা করছি। সাকিব ভাইয়ের পরিকল্পনা অনুযায়ী বোলিং করেছি।’
তিনি আরও যোগ করেন, ‘এটা টি-টোয়েন্টি খেলা। টেস্টে এক জায়গায় বল করতে হয়, এখানেতো আর জোড়ে বল করলে হবে না, এখানে ভ্যারিয়েশন করে বল করতে হয়। আমি সেটাই চেষ্টা করেছি।’
মিরপুরের চেয়ে এখানে বোলিং করে বেশি স্বাচ্ছন্দ্য পেয়েছেন শহীদ। এই উইকেটে জোরে বোলিং করতে হয় না। শুধু ভ্যারিয়েশন দিয়ে বোলিং করলেই সাফল্য পাওয়া যায় বলে জানান তিনি, ‘মিরপুরের উইকেটে ফাস্ট বোলাররা জোরে বল করে সাফল্য পায়। এখানে তেমনটা নয়। এই উইকেটে অনেক ভ্যারিয়েশন ব্যবহার করে উইকেট তুলে নিতে হয়। ব্যাটসম্যানকে পড়েই করে বল করতে হয়। এখানে জোরে বল করে ভালো কিছু করা সম্ভব নয়।’
ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে খেলে এখন পর্যন্ত ১১টি উইকেট তুলে নিয়েছেন শহীদ। আর তাতেই চলতি আসরে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় চলে এসেছেন তিনি। টুর্নামেন্ট শেষে নিজেকে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি বোলার হিসেবে দেখতে চান কিনা জানতে চাইলে শহীদ বলেছেন, ‘এ নিয়ে আসলে ভাবছি না। আমি আসলে সর্বাধিক উইকেটশিকারিৃ এখনও খেলা শেষ হয় নি।’
তিনি আরও যোগ করেন, ‘বর্তমানে টেস্টে খেলছি। ভবিষ্যতে সীমিত ওভারে মনে করা হবে কিনা এটা আমি জানি না। আমার পারফরম্যান্স যদি ভালো হয়। যদি মনে করে আমাকে দলে নিলে দল উপকৃত হবে। তাহলে আমার সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করব।’
চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে আগে ব্যাটিং করে ঢাকা ১৪৮ রান সংগ্রহ করে। এটাকে বোলিং করার জন্য যথেষ্ট মনে করেছেন শহীদ, ‘যদিও যথেষ্ট স্কোর না। তবে আমরা ভালো বল করেছি বলেই এটি যথেষ্ট স্কোর হয়ে গেছে। উইকেট এই রান চেজ করার মতো ছিল।’-বাংলা ট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ