সাঙ্গাকারা কেন যে অবসরে যাচ্ছেন!

আপডেট: জুন ৩০, ২০১৭, ১২:৩২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


কেন অবসরে যাচ্ছেন কুমার সাঙ্গাকারা? এবার কাউন্টিতে ১৮০ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংসে খেলেছেন সাবেক শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক। সর্বশেষ ১১ ইনিংসে ৬টি সেঞ্চুরি। এই মৌসুমে কাউন্টিতে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে এক হাজার রান পূর্ণ করলেন। একই সঙ্গে শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি আবারও এই প্রশ্নটা তুলে দিলেন, কেন বিদায় নিচ্ছেন!
সাঙ্গাকারা আসলে বিদায় বলেছেন আরও দুই বছর আগে। ভারতের বিপক্ষে ২০১৫ সালের টেস্ট সিরিজের মাঝপথে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে সরে গেছেন। তবু চাইলেই তাঁর ব্যাটিংয়ের স্বাদ নেওয়া যাচ্ছিল; বিভিন্ন টি-টোয়েন্টি লিগ ও প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে। কিন্তু সে পাটও চুকোতে বসেছে প্রায়। কাউন্টি খেলতে গিয়ে জানিয়েছেন, এবারই শেষ। আর দেখা যাবে না তাঁকে চার দিনের ক্রিকেটে। কম তো বয়স হলো না, প্রায় চল্লিশ ছুঁই ছুঁই। কারণ? সাঙ্গাকারা বলেছেন, ‘যতই চেষ্টা করুন, অনিবার্য কিছু আটকাতে পারবেন না। যখন আপনি এগিয়ে থাকবেন, তখনই চলে যাওয়া উচিত।’
কিন্তু কাউন্টিতে মাত্র ১১ ইনিংস খেলার পর মনে হচ্ছে, একটু বেশিই আগে চলে যাচ্ছেন না তো! টানা পাঁচ ইনিংসে সেঞ্চুরি করেছেন গত মাসেই। সেটা ছয়ে টেনে ডন ব্র্যাডম্যান ও সিবি ফ্রাইদের পাশে বসার আশাও জাগিয়েছিলেন। ৮৪ রানে আউট হয়ে যাওয়ায় তা আর হয়নি। কাল করেছেন নিজের ষষ্ঠ সেঞ্চুরি। তাতেই কাউন্টিতে তাঁর এক হাজার রান হয়ে গেল। রানের তালিকায় সবচেয়ে কাছে যিনি আছেন, তিনিও ২০০ রানের বেশি দূরত্বে। ১৮৩ বলে ১৮০ রানের এই ইনিংসের পর তাঁর গড় দাঁড়িয়েছে ১০৮.৬!
ব্যাটের ধার যে এখনো এক ফোঁটাও কমেনি, সেটা বোঝা যায় এ পরিসংখ্যানে। ২০১৫ বিশ্বকাপে টানা চার সেঞ্চুরির বিশ্ব রেকর্ড গড়েও ওয়ানডে থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত থেকে সরেননি। শ্রীলঙ্কাও তাঁর শূন্যস্থান পূরণ করতে পারেনি। সাঙ্গাকারার বর্তমান ফর্ম তাই আবারও প্রশ্ন জাগিয়েছে, একটু আগেই কি চলে গেছেন সাঙ্গাকারা? বয়সই কি সব? অন্তত তাঁর ব্যাটে যে ধার এখনো এতটুকু কমেনি! মিসবাহ-উল-হক কিংবা শিবনারায়ণ চন্দরপল তো চল্লিশ পেরিয়েও খেলে গেছেন।
তবে সাঙ্গাকারা নিজে ভাবেন ভিন্ন কিছু, ‘সবচেয়ে বড় ভুল হলো যতটা না তার চেয়েও বেশি নিজেকে বড় মনে করা। সব খেলারই খেলোয়াড়ের একটা মেয়াদ থাকে, এরপর সরে যাওয়া উচিত।’ ভাবনার দিক দিয়েও সাঙ্গা যেন আশ্চর্য এক ব্যতিক্রম!
হয়তো তাঁর কথাই ঠিক। হয়তো চলে যাওয়ার সবচেয়ে সেরা সময় হলো বাকিদের মনে হাহাকার জাগিয়েই বিদায় নেওয়া। কিন্তু লঙ্কান ক্রিকেট যেভাবে ডুবছে, আর অন্য দিকে সাঙ্গার ব্যাটে এখনো যেভাবে রানের ফুলকি; সেই দেশের ক্রিকেট-সমর্থকদের মনে প্রশ্ন তো উঠতেই পারে, কেন যে অবসরে চলে গেলেন সাঙ্গাকারা!-প্রথম আলো অনলাইন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ