সাজার মেয়াদ পূর্ণ হওয়া ২৩ আসামীর মুক্তি দাবি স্বজনদের

আপডেট: March 13, 2020, 12:28 am

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি


সিরাজগঞ্জ ও পাবনা জেলা কারাগারে ২০ বছরের অধিক সময় কারাভোগকারী ২৩ আসামীর মুক্তি দাবি করেছেন স্বজনেরা। মুজিববর্ষ উপলক্ষে কারাবিধি প্রথম খন্ডের ৫৬৯ ধারা মোতাবেক এসব কয়েদীদের মুক্তির জন্য প্রধানন্ত্রীর কাছে আবেদন জানিয়েছেন তারা। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ শহরের একটি পত্রিকা অফিসে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান স্বজনেরা।
আসামীরা হলেন, আমির হোসেন সবুজ(কয়েদী নম্বর ১৪৮২/এ), জয়নাল, ইসমাইল হোসেন, শিপন(কয়েদী নম্বর ৩৫৬/এ), হিরা(কয়েদী নম্বর ২৯২৮/এ), মমিন (কয়েদী নম্বর ২৯২৭/এ), আমিনুল(কয়েদী নম্বর ৩৩২৭/এ), নূর হোসেন, মো. হাফিজুল (কয়েদী নম্বর ৯২২৩/এ), মোজাম্মেল, খোরশেদ, রমজান আলী, আবদুুল হাই, তোফাজ্জল হোসেন, মো. রফিক, আবদুল মজিদ, মো. বেল্লাল, মো. কিরণ (কয়েদী নম্বর ৩৩২৫/এ), মো. নুরু মিয়া, আবদুল হাকিম, মিজানুর রহমান মিজান, মো. রফিক, মো. ইসরাইল ও শাহা আলী।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে কারাবন্দী আমির হোসেন সবুজের ভাতিজা সুলতান মাহমুদ বলেন, ৫৬৯ ধারা মোতাবেক রেয়াদ বাদে ২৩ আসামীর বেশিরভাগই ২১ থেকে ২২ বছর কারাভোগ করেছে। ২০১০, ২০১১ ও ২০১৩ সালের পর দীর্ঘ মেয়াদী কারাবন্দীদের মুক্তি দেয়া স্থগিত রয়েছে। ফলে এসব আসামীর প্রাপ্ত রেয়াদসহ সাজার মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও মুক্তি স্থগিত রয়েছে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, আমির হোসেন সবুজের মা জাহানারা বেগম, নুরু মিয়ার ছেলে সোহাইল আহম্মেদ, বেলালের স্ত্রী শেফালী খাতুন, ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী রেহেনা খাতুনসহ অন্যান্য কয়েদীদের স্বজনেরা।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ