সাত মাসে বাণিজ্য ঘাটতি বেড়েছে ৩৬ শতাংশ

আপডেট: মার্চ ৯, ২০১৭, ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


দুই বছর স্বস্তিতে কাটলেও বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার প্রেক্ষাপটে আমদানি খরচ বেড়ে যাওয়ায় পণ্য বাণিজ্যে ঘাটতি বাড়ছে বাংলাদেশের।
চলতি ২০১৬-১৭ অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে (জুলাই-জানুয়ারি) পণ্য বাণিজ্যে সামগ্রিক ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫২৮ কোটি ২০ লাখ (৫.২৮ বিলিয়ন) ডলার। এই অংক গত বছরের একই সময়ের চেয়ে প্রায় দেড় বিলিয়ন ডলার বা ৩৬ শতাংশ বেশি।
বাণিজ্য ঘাটতি বাড়ার কারণ খুঁজতে গিয়ে বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) গবেষক জায়েদ বখত বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বেশ কিছু দিন জ্বালানি তেলের দাম কম ছিল। সে কারণে এ খাতে বাংলাদেশের খরচ তখন কম হয়েছে। খাদ্যপণ্যের দামও কম ছিল। অন্যদিকে রপ্তানি আয় বাড়ছিল। স্বাভাবিকভাবেই বাণিজ্য ঘাটতি সহনীয় পর্যায়ে ছিল।
“কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে জ্বালানি তেলের দাম বাড়তে বাড়তে প্রায় ৬০ ডলারে উঠেছে। পদ্মা সেতু, মেট্রোরেলসহ বড় প্রকল্পের কাজ শুরু হওয়ায় প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম আমদানি বেড়ে গেছে। এ কারণেই বাণিজ্য ঘাটতি বেড়েছে।”
মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক বৈদেশিক লেনদেন ভারসাম্যের হালনাগাদ যে তথ্য প্রকাশ করেছে তাতে দেখা যায়, চলতি অর্থবছরের জুলাই-জানুয়ারি সময়ে সব মিলিয়ে বাংলাদেশ দুই হাজার ৪৯০ কোটি ডলারের পণ্য আমদানি করেছে, যা গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে প্রায় ১০ শতাংশ বেশি।
অন্যদিকে এই সময়ে বিভিন্ন পণ্য রপ্তানি থেকে বাংলাদেশ এক হাজার ৯৬১ কোটি ৮০ লাখ ডলার আয় করেছে, যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৪ দশমিক ৪২ শতাংশ বেশি।
এ হিসাবে অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে সামগ্রিক পণ্য বাণিজ্যে ঘাটতি দাঁড়াচ্ছে ৫২৮ কোটি ২০ লাখ ডলার।- বিডিনিউজ