সাপাহারে অবৈধ জায়গায় চারা গাছের হাট || খাজনা আদায় বন্ধ করলেন ইউএনও

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯, ১:৪৮ পূর্বাহ্ণ

সাপাহার প্রতিনিধি


নওগাঁর সাপাহারে মৌসুমী চারা গাছের হাটে দীর্ঘ দিনের অবৈধ খাজনা আদায় বন্ধ করলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার কল্যাণ চৌধুরী ও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবদুল হাই নিউটন।
জানা গেছে দীর্ঘ দিন ধরে সাপাহার উপজেলার টিঅ্যান্ডটি মোড়ে ইসলামপুর মৌজায় রাস্তার ধারে মৌসুম ভেদে সারা বছরই হাটবার শনিবার করে চারা গাছের বাজার বসে। প্রতি হাটেই ওই বাজার থেকে গাছ বিক্রেতারা লাখ লাখ টাকা গ্রাহকদের কাছ থেকে নিয়েছে। এ ধরনের এক গ্রাহকের অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল শনিবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও অফিসার ইনচার্জ (ওসি) যৌথভাবে এক অভিযান চালিয়ে বিষয়টির সত্যতা খুঁজে পান। পরে চারা গাছের হাটের জায়গাটি যেহেতু হাটের জায়গার মধ্যে নয় তাই হাটের বাইরে কোন ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান করে সেখান থেকে খাজনা তোলাও সম্পুর্ণ বলে তা বন্ধ করে দেন।
এ সময় নির্বাহী অফিসার ও ওসি জনস্বার্থে গ্রহকদের জানিয়ে দেন, আজ (১৪ সেপ্টেম্বর শনিবার) থেকে ওই জায়গায় চারা গাছ কেনা বেচা হলে ক্রেতাদের কাছ থেকে কোন প্রকার খাজনা আদায় করা হবে না। এরপর থেকে ওই জায়গায় কোন গাছের খাজনা আদায় করা হলে পরবর্তীতে চারা গাছ ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও তাদের হুঁশিয়ারী প্রদান করেন।
গতকাল শনিবার হাটে চারা গাছ ক্রেতারা নির্বাহী অফিসারের সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণ করায় তাকে ধন্যবাদ জানান। তবে অবিলম্বে চারা গাছ বিক্রেতাদের সাপাহার হাট-বাজারের পেরী-ফেরীর আওতায় আনা হবে এবং সেখান থেকে তারা চারা গাছের জন্য সরকারি নির্ধারিত হারে খাজনাও আদায় করতে পারবে বলেও জানিয়ে দেন উপজেলা নির্বহী কর্মকর্তা কল্যাণ চৌধুরী।