সাপাহারে এক যুবকের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

আপডেট: জুন ৬, ২০২০, ২:৫৩ অপরাহ্ণ

সাপাহার প্রতিনিধি:


নওগাঁর সাপাহারে অর্থনৈতিক চাপের মুখে পড়ে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক যুবক। আত্মহত্যাকারী যুবক উপজেলার ফুটকইল পশ্চিমপাড়ার আয়ুব আলীর ছেলে সারোয়ার (২৫)। উপজেলা সদরের লাবনী সুপার মার্কেটে বেশকিছু দিন ধরে সে কিংস টেইলাস খুলে দর্জির ব্যাবসা করে আসছিল বলে জানা গেছে।
আত্মহত্যাকারী যুবকের পারিবারিক ও গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে, সারোয়ার কয়েকবছর ধরে ওই মার্কেটে দর্জির ব্যাবসা করে আসছিল। এরই মধ্যে ব্যবসা চালাতে গিয়ে সে বিভিন্ন ব্যাংক, এনজিও’র নিকট থেকে মোটা অংকের ঋণ করেছিল। বর্তমানে বৈশ্বিক করোনার প্রভাবে ব্যবসায় বড় ধরনের ভাটা পড়ায় ধার দেনা শোধ করতে না পেরে সে মানসিক চাপে ভুগছিল। প্রতিদিনের ন্যায় ঘটনার দিন রাতে সে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে বাসায় ফিরে সাংসারিক বিষয় নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য হয় এবং এই মনমালিন্যের ঘটনাকে কেন্দ্র করে সারোয়ার তার স্ত্রীর উপর অভিমান করে রাত্রি ১০টার দিকে বাসা হতে বেরিয়ে যায়। সারা রাতে সে বাসায় ফিরে না আসলে রাতেই অনেক জায়গায় তার বাবা-মা ছেলের খোঁজ খবর নেয়। সকালে গ্রামবাসী তাদের বাসার অদুরে একটি আমবাগানে গাছের ডালে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ দেখতে পেয়ে পাড়ায় সংবাদ দেয়। এর পর সংবাদ পেয়ে তার বাবা-মা আত্মীয় স্বজনরা দৌড়ে ঘটনা স্থালে যায় এবং পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ নামিয়ে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে লাশ মর্গে পাঠায়। এবিষয়ে সাপাহার থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের হয়েছে। অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল হাই আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।