সাপাহারে গ্রামীণফোনের চুরির মামলায় তিনজন আটক

আপডেট: অক্টোবর ১৩, ২০২১, ৯:৫০ অপরাহ্ণ


সাপাহার (নওগাঁ)প্রতিনিধি:


নওগাঁর সাপাহারে গ্রামীণফোনের মালামাল বিক্রয় ও মালামাল চুরির ঘটনায় থানা পুলিশের পৃথক দুটি অভিযানে দেশের বিভিন্ন এলাকা হতে আন্তঃজেলা চোর চক্রের তিনজন সক্রিয় সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলো পিরোজপুর জেলার কাউখালী উপজেলার বৌলাকান্দা গ্রামের শহীদ মাঝির ছেলে মাইনুল ইসলাম (২৫), ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলার বাকপুর মির্দাবাড়ী গ্রামের শাহআলমের ছেলে মামুন (৩২) ও কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ উপজেলার মোকামবাড়ী গ্রামের বাচ্চু মিয়ার ছেলে ইমরান (২৩)।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেকুর রহমান সরকার জানান, গত ২৩ আগস্ট উপজেলা সদরের ইউনিয়ন পরিষদের পার্শ্বে অবস্থিত মরহুম দুলাল চৌধুরীর বাড়ীর নিচতলায় সংরক্ষিত গ্রামীণফোনের মালামাল বিক্রয় করা নগদ ১৬ লক্ষ ৬০ হাজার ৯০৪ টাকা ও ১০ লক্ষ ৭৯ হাজার ৮০ টাকার মালামাল চুরি হয়। উক্ত ঘটনার প্রেক্ষিতি জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান মিয়ার দিক নির্দেশনায় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মর্তা তারেকুর রহমান সরকারের নেতৃত্বে পুলিশ উপ-পরিদর্শক (এসআই) মানিক হোসেন মামলার তদন্ত শুরু করেন।

এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার (১১ অক্টোবর) পুলিশ উপ পরিদর্শক মানিক হোসেন সঙ্গীয় চৌকস ফোর্স সহ তথ্য প্রযুক্তি ও সোর্সের সহায়তায় ভোর সোয়া ৫টায় টঙ্গী পশ্চিম থানা ও সকাল ৬.১০ টায় নারায়নগঞ্জের রূপগঞ্জ থানায় দুটি পৃথক অভিযান চালিয়ে আন্তঃজেলা চোরচক্রের ওই তিনজন সদস্যকে গ্রেফতার করে সাপাহার থানায় নিয়ে আসেন। ১৩ অক্টোবর বুধবার আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে আদালতের মাধ্যমে হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও তিনি জানান ।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারেকুর রহমান সরকার সাংবাদিকদের বলেন, আটককৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই চুরির ঘটনা স্বীকার করেছে। উক্ত চুরি মামলার ঘটনায় চোরাই মালামাল উদ্ধার সহ ঘটনার সাথে জড়িত সকল আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশি তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।