সাপাহারে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এক ব্যক্তিকে হত্যা চেষ্টা!

আপডেট: মে ৪, ২০১৭, ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ

সাপাহার প্রতিনিধি


নওগাঁর সাপাহার উপজেলার করমুডাঙ্গা এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মসফুল (৪৫) নামের এক ব্যক্তিকে হত্যার চেষ্টা চালানোর অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে ১১ জনকে আসামি করে সাপাহার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, করমুডাঙ্গা চৌমহনী গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে হুমায়ুন কবিরের (৪৮) সাথে একই গ্রামের গোল মোহাম্মদের ছেলে একরামুলের (৪৮) পারিবারিক জমিজমা সংক্রান্তে পূর্ব শত্রুতা চলে আসছিলো। এরই জের ধরে গত ২৯ এপ্রিল সকাল ৭টার দিকে হুমায়ুন কবিরের ছোট ভাই মসফুলকে পার্শ্ববর্তী রমজান সরদারের বাড়ির পাশে ডেকে নিয়ে যায় অভিযুক্ত একরামুল হকের প্রতিবেশী রাশিদা বেগম নামের এক নারী। সেখানে আগে থেকে উৎ পেতে থাকা অভিযুক্ত একরামুল হকসহ (৪৮) ১১ জন মসফুলকে হত্যার চেষ্টায় ধারালো ফার্সা দিয়ে মাথায় আঘাত করে। সঙ্গে সঙ্গে মসফুল মাঠিতে লুটিয়ে পড়ে চিৎকার শুরু করলে স্থানীয়রা এগিয়ে আসে। সে সময় অভিযুক্ত একরামুল হকসহ সকল বিবাদীগণ বিভিন্ন হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়। রক্তাক্ত অবস্থায় মসফুলকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে সাপাহার সরকারি হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানে মসফুল সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এ বিষয়ে ১১ জনকে আসামি করে মসফুলের বড় ভাই হমায়ুন কবির বাদী হয়ে সাপাহার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
এ বিষয়ে সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।