সাবেক স্বামীকে পিটিয়ে সন্তান ছিনিয়ে নিলেন মা

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৭, ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


রাজশাহী আদালতে আইনজীবী সমিতির কার্যালয়ে সাবেক স্বামীকে পিটিয়ে সন্তান ছিনিয়ে নিয়েছেন হিরা বেগম (৩০) নামে এক নারী। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। সন্তানের দাবি নিয়ে মায়ের দায়ের করা মামলার শুনানির ধার্যদিনে সাবেক স্বামী তার সন্তান নিয়ে আদালতে গেলে এ ঘটনা ঘটে।
ঘটনার পর পুলিশ উভয়পক্ষের তিনজনকে আটক করেছে। তবে সাত বছর বয়সি ওই সন্তানটি নিয়ে পালিয়ে যেতে পেরেছেন তার মায়ের পক্ষের লোকজন। পরবর্তীতে দুইপক্ষের মধ্যে মারামারি চলতে থাকলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।
নগরীর রাজপাড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোতালেব হোসেন জানান, নগরীর গণকপাড়া এলাকার হৃদয় ইসলামের সঙ্গে ডিঙ্গাডোবা ব্যাংক কলোনি এলাকার হিরা বেগমের বিয়ে হয় বছর ১০ আগে। তাদের হিমেল নামে সাত বছরের এক সন্তান আছে। হিমেলের জন্মের কিছুদিন পরে তাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ দেখা দেয়। একপর্যায়ে তাদের ছাড়াছাড়ি হয়।
তবে হিমেল তার বাবার কাছেই ছিল। এ নিয়ে সন্তানের দাবি করে হিরা বেগম আদালতে মামলা করেন। ওই মামলায় আদালত রায় দেন হিমেল তার বাবার কাছেই থাকবে। তবে হিরা ওই রায়ের বিরুদ্ধেও আদালতে আপিল করেন। ওই আপিলের শুনানির জন্য গতকাল দিন ধার্য ছিল। মারামারি করে সন্তান ছিনিয়ে নেয়ার পর আদালতে আর সেই আপিলের শুনানি হয়নি।
এসআই মোতালেব আরও জানান, আদালতে হাজির হতে হৃদয় ইসলাম তার সন্তানকে নিয়ে আইনজীবীদের বারে বসে ছিলেন। হৃদয়ের সঙ্গে তার বড় ভাই আখতারুজ্জামানও ছিলেন। এ সময় হিরা বেগম তার লোকজন নিয়ে তাদের ওপরে হামলা চালান। একপর্যায়ে হিরা বেগমও তার সাবেক স্বামীকে মারপিট শুরু করেন। এ সময় হৃদয়ও তার সাবেক স্ত্রীকে মারপিট করেন। এরই মধ্যে হিরার আত্মীয়স্বজন হিমেলকে নিয়ে পালিয়ে যান।
রাজপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাফিজুর রহমান জানান, মারামারিতে হিরা ও আক্তারুজ্জামান আহত হয়েছেন। তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর ঘটনাস্থল থেকে হিরার সাবেক স্বামীসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে। আদালত চত্বরে মারামারি অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান ওসি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ