সাভারের বাসায় গ্যাসের আগুনে দম্পতি নিহত

আপডেট: জানুয়ারি ৮, ২০১৭, ১২:০৯ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ঢাকার সাভারে লাইনে ছিদ্র থাকায় ঘরের ভেতর ছড়িয়ে পড়া গ্যাসে আগুন লেগে স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে; দগ্ধ হয়েছেন পরিবারের আরও পাঁচজন।
সাভার মডেল থানার এসআই লুৎফর রহমান জানান, শনিবার ভোরে সাভার পৌর এলাকার তারাপুর মহল্লায় তাজুল ইসলামের একতলা বাড়িতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত রওশন আলী (৫৫) ও তার স্ত্রী খয়রুন নেসা (৪৫) বাড়ির মালিক তাজুল ইসলামের আত্মীয়।
সাভার ফায়ার সার্ভিসের জ্যেষ্ঠ স্টেশন কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দিন বলেন, ঘরের ভেতরে গ্যাস লাইনে ছিদ্র ছিল। রাতে জানালা-দরজা বন্ধ থাকায় গ্যাস সব রুমে ছড়িয়ে পড়ে। ভোরে খাবার তৈরির জন্য আগুন জ্বালাতেই সব ঘরে ছড়িয়ে পড়ে।
“ঘরের ভেতরে গ্যাসপাইপ ছিদ্র থাকলে চুলার চাবি ঘুরালেই স্পার্ক করে আগুন ধরে যায়।”
এসআই লুৎফর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আগুন একতলা ভবনের সব ঘরে ছড়িয়ে পড়লে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে সাভার ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
“অগ্নিদগ্ধ হয়ে স্বামী-স্ত্রী দুইজনই ঘটনাস্থলে মারা যান। আহত হন পাঁচজন। আগুনে বাড়ির সব মালপত্র পুড়ে গেছে।” অগ্নিদগ্ধ পাঁচজনকে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয় বলে জানান এসআই লুৎফর।
তারা হলেন – নিহত রওশনের ছেলে হযরত আলী, মেয়ে ফাতেমা বেগম, ফাতেমার স্বামী মো. সেলিম, রওশনের ভায়রা বাড়ির মালিক তাজুল ইসলাম ও তাজুলের স্ত্রী মেহেরুন নেসা।
হাসপাতালের পরিচালক আনোয়ারুল কাদির নাজিম জানান, দগ্ধ পাঁচজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তারা চাইলে চলে যেতে পারেন।- বিডিনিউজ