সাম্প্রদায়িক উস্কানি ঘটনায় নগরীর হেতম খাঁ এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন

আপডেট: জুন ১৯, ২০২১, ১০:৫৮ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


মসজিদে মাইকিঙের মাধ্যমে স্থানীয়দের উত্তেজিত করে সাম্প্রদায়িক উস্কানি দেয়ার ঘটনায় নগরীর হেতম খাঁ এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
শনিবার রাত ৯টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মণ বলেন, এখন পর্যান্ত কোন পক্ষই লিখিত অভিযোগ করেনি। তবে আগামীকাল (রোববার,২০ জুন) সিটি মেয়র উভয় পক্ষকে নিয়ে আলোচনা সভায় বসবেন। ঘটনাটি সেনসিটিভ হওয়ায় মসজিদ সহ এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। যাতে করে কেউ এলাকার পরিবেশ নষ্ট করতে না পারেন। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা হয়নি।
উল্লেখ্য, স্থানীয় সূত্র ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) রাত ১০ টার দিকে নগরীর হেতেম খাঁ এলাকায় সিপাইপাড়ার সাব্বিরের সঙ্গে শিমুলের কোনো এক বিষয় নিয়ে বুধবার (১৭ জুন) সকালে মারামারির ঘটনা ঘটে। এর জেরে রাতে নগরীর হেতেম খাঁর লিচুবাগান ও সিপাহীপড়া এলাকার যুবকদের মধ্যে মারপিটের ঘটনা ঘটে। শাওনের ছোট ভাই শিমুল এবং তার লোকজনের সঙ্গে সিপাহীপাড়ার যুবকদের মারপিটের সময় হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এর এক পর্যায়ে নগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রকিকুমার ঘোষকে দোষারোপ করে মসজিদের মাইক থেকে ঘোষণা দিয়ে এলাকাবাসীকে একত্র হওয়ার আহ্বান জানানো হয়।
বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মণ সোনার দেশকে জানান, মসজিদের মাইক ব্যবহার করে ঘোষণা দেয়া হয়Ñ‘মালুর বাচ্চা মালু- হিন্দু হয়ে রকিকুমার ঘোষ মসজিদে হামলা করেছে, এটা আমরা মেনে নিতে পারছি না। আপনারা সবাই এগিয়ে আসুন’।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ