সার্চ কমিটির সংক্ষিপ্ত তালিকায় ২০ জনের নাম

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৭, ১২:০৯ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে রাজনৈতিক দলগুলোর প্রস্তাবিত নাম বাছাই করে ২০ জনের একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা করেছে সার্চ কমিটি, যার মধে‌্য দশজনের নাম শেষ পর্যন্ত রাষ্ট্রপতির কাছে সুপারিশ করা হবে।

মঙ্গলবার সন্ধ‌্যায় সার্চ কমিটির বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, “দলগুলোর কাছ থেকে ১২০-১২৫টির মতো নাম জমা পড়েছে। তার মধ্যে থেকে সততা, দক্ষতা, অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে সার্চ কমিটি আজ ২০ জনের একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা করেছে।” তবে এই ২০ জনের মধে‌্য কারা আছেন, সে তথ‌্য প্রকাশ করেননি মন্ত্রিপরিষদ সচিব। সার্চ কমিটি স্ব-উদ্যোগে কিছু নাম প্রস্তাব করতে পারে বলেও আভাস দিয়েছেন তিনি। আরও যাচাই-বাছাইয়ের পর ২০ জনের তালিকা থেকে দশজনকে চূড়ান্ত করবে সার্চ কমিটি। সেই দশজনের নাম প্রস্তাব করা হবে রাষ্ট্রপতির কাছে।

সার্চ কমিটির ওই সুপারিশের মধে‌্য থেকে একজন প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ অন‌্যূন পাঁচ সদসে‌্যর নতুন নির্বাচন কমিশন নিয়োগ দেবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

কাজী রকিব উদ্দিন আহমদ নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষে ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি দায়িত্ব নেবে নতুন কমিশন। তাদের অধীনেই ২০১৯ সালের শুরুতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে।

রাজনৈতিক দলগুলোর কাছ থেকে নাম পাওয়ার পর মঙ্গলবার বিকাল ৪টা থেকে প্রায় দুই ঘণ্টা সুপ্রিম কোর্টের জাজেস লাউঞ্জে বৈঠক করেন সার্চ কমিটির ছয় সদস্য। বিভিন্ন দলের প্রস্তাবিত নামগুলো বৈঠকে উপস্থাপন করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এই কমিটিকে সাচিবিক সহায়তা দিচ্ছে।

শফিউল আলম পরে সাংবাদিকদের বলেন, রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপে অংশ নেয়া ৩১টি রাজনৈতিক দলের মধ্যে চারটি বাকি ২৭টি দলের চিঠি তারা পেয়েছেন। অবশ‌্য এর মধ্যে দুটি দল জানিয়েছে, তারা চিঠি দিলেও কারও নাম প্রস্তাব করেনি।

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, সোমবার বিশিষ্টজনদের সঙ্গে আলোচনায় আসা পরামর্শ অনুযায়ী সংক্ষিপ্ত তালিকা করার ক্ষেত্রে গ্রহণযোগ্য ও নির্দলীয়দের গুরুত্ব দিয়েছে সার্চ কমিটি।

তিনি বলেন, “যেহেতু রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে এক ধরনের প্রতিযোগিতা রয়েছে, এজন্যে আমরা নাম প্রকাশ করছি না।”

আরেক প্রশ্নের উত্তরে শফিউল আলম বলেন, “এখন পর্যন্ত সার্চ কমিটি কোনো নাম প্রস্তাব করেনি। করবে কিনা জানি না। সার্চ কমিটিতে যারা রয়েছেন, তারা সবাই ব্যক্তিগত ও পেশাগত দিক থেকে অভিজ্ঞ। সেই অভিজ্ঞতা থেকে কেউ নাম প্রস্তাব করতেও পারেন।”

রাষ্ট্রপতি সার্চ কমিটিকে নাম সুপারিশের জন‌্য যে ১০ কার্যদিবস সময় দিয়েছেন, তা শেষ হবে ৮ ফেব্রুয়ারি।

“আমাদের হাতে সময় খুব কম। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সার্চ কমিটি নাম সুপারিশ করার জন‌্য কাজ করে যাচ্ছে,” বলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে এই সার্চ কমিটির অপর সদস‌্যরা হলেন হাই কোর্ট বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান, সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক, মহা হিসাব নিরীক্ষক (সিএজি) মাসুদ আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য শিরীণ আখতার।- বিডিনিউজ