সিংড়ায় প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে হত্যা মামলার আসামি

আপডেট: জুলাই ৩, ২০১৭, ১২:৫৯ পূর্বাহ্ণ

সিংড়া প্রতিনিধি


নাটোরের সিংড়া উপজেলার হাসপুকুরিয়া গ্রামের গৃহবধু শিউলি খাতুন (৩৫) হত্যার আসামিরা ঘুরে বেড়াচ্ছে প্রকাশ্যে। আসামিরা বাদী পক্ষকে মামলা তুলে নেয়ার হুমকি দিয়ে আসছে। সিংড়া থানা পুলিশ নিরব ভুমিকায় থাকায় জনমনে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।
জানা যায়, প্রায় ১৮ বছর আগে সিংড়া উপজেলার হাসপুকুরিয়া গ্রামের মৃত রমজানের ছেলে আজাহার আলীর সাথে নন্দীগ্রাম উপজেলার হাটলাল গ্রামের মজিবরের মেয়ে শিউলির বিয়ে হয়। বিয়েতে ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দেয়। কিন্তু সন্তান না হওয়ায় প্রায়ই শিউলির উপর চলতে থাকে অমানুষিক নির্যাতন। মাঝে মাঝে মারধর করে তাকে বাড়িতে পাঠানো হয়। কিন্তু শত অত্যাচার সহ্য করে সংসারে স্বামীর খেদমত করতে থাকে সে। এর মধ্যে প্রথম স্ত্রীর অমতে আজাহার ২য় বিয়ে করে। পুনরায় ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করে আজাহার। ঘটনার আগে তাকে নির্যাতন করা হয়। পরে গত ১৬ মার্চ দিবাগত রাতে আজাহার বাড়ির অন্যদের সহায়তায় শ^াসরোধ করে হত্যা করে শিউলিকে।
এ মামলার বাদী শিউলির ভাই মখলেছুর রহমান জানান, ওই দিন রাতে শিউলি আমাকে ফোন দিয়ে বলে তাকে মারধর করা হচ্ছে । পরের দিন ফোন বন্ধ পেয়ে সন্দেহ হয়। সকালে খবর পেয়ে ছুটে গিয়ে শোয়ার ঘরে লাশ দেখতে পাই। তার গলায় ফাঁস দেয়ার চিহ্ন ছিল। তিনি আরো বলেন, সিংড়া থানায় মামলা নেয়া হয়নি। পরে নাটোর কোর্টে মামলা দায়ের করি।
এ বিষয়ে সিংড়া থানার মামলার তদন্তকারী অফিসার এসআই আনহার বলেন, পোস্টমর্টেমের রির্পোট পাওয়া যায়নি। তবে আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ