সিঙ্গাপুরে মাদক পাচারের দায়ে মালয়েশীয়ের ফাঁসি

আপডেট: জুলাই ১৫, ২০১৭, ১২:১৬ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


সিঙ্গাপুর সরকার আজ মাদক পাচারের দায়ে এক মালয়েশীয় নাগরিকে মৃত্যুদ- কার্যকর করেছে। প্রবাগারন শ্রীবিজয়ান (২৯) নামের এ মালয়েশীয় নাগরিক ২০১২ সালে প্রাইভেট কারের ভেতর ২২ দশমিক ২৪ গ্রাম হেরোইনসহ সিঙ্গাপুরে পুলিশ চেকপোস্টে গ্রেপ্তার হয়েছিলো।
খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র। এএফপি জানায়, জাতিসংঘসহ বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা বিচারকার্যে বেশ কিছু ত্রুটির কথা উল্লেক করে শ্রীবিজয়ানের সাজা কমানোর আবেদন করেছিলো। সিঙ্গাপুর কেন্দ্রীয় মাদক বিষয়ক ব্যুরো এক বিবৃতিতে জানায়। সিঙ্গাপুর কেন্দ্রীয় মাদক বিষয়ক ব্যুরো এক বিবৃতিতে জানায়, শুক্রবার তাকে ফাসিঁতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদ- কার্যকর করা হয়।
বিগত দুই বছর আগে আদালত তাকে দোষী স্যাবস্ত করে হেরোইন পাচারের দায়ে মৃত্যুদ-ের রায় ঘোষণা করা হয়েছিলো।
সিঙ্গাপুরের মাদক আইন অনুযায়ী কাছে পাওয়া একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ মাদক কারো গেলে তাকে মৃত্যুদ- দেয়া হয়।
মাদক বিষয়ক ব্যুরো জানায়, মালয়েশীয় নাগরিকের কাছে যে পরিমাণ হেরোইন পাওয়া গিয়েচিল, যা ২৬৫ জন মাদকাসক্ত ব্যক্তির এক সপ্তাহ মাদক গ্রহণের জন্য যথেষ্ট।
দ-প্রাপ্ত মালয়েশীয় নাগরিক সিঙ্গাপুর ও তার দেশের উচ্চ আদালতে আপিল করেছিলো। মালয়েশিয়ার উচ্চ আদালত তার আপিলটি হেগে অবস্থিত ইন্টারন্যাশনাল র্কোট অব জাস্টিসে প্রেরণ করেছিলো। গত বৃহস্পতিবার সিঙ্গাপুরের উচ্চ আদালতে আপিলের পাশাপাশি দেশটির প্রেসিডেন্টের কাছে প্রাণভিক্ষা চেয়ে আবেদন করেছিলো, কিন্তু উভয় আবেদন খারিজ হয়ে যাওয়ায় আজ তার মৃত্যুদ- কার্যকর করা হয়।
এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল তার বিচার প্রক্রিয়ার সুষ্ঠুতা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে।
মাদক বিষয়ক ব্যুরো দাবি করেছে, তাকে সকল প্রকার আইনি পদ্ধতি অবলম্বনের সুযোগ দেয়া হয়েছে। তথ্যসূত্র: বাসস

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ