সিডনিতে ফের রানের পাহাড়ে অজিরা! সিরিজ বাঁচাতে অসাধ্য সাধন করতে হবে বিরাটদের

আপডেট: নভেম্বর ২৯, ২০২০, ৩:২৫ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


এ যেন প্রথম ম্যাচের হুবহু পুনরাবৃত্তি। টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত অস্ট্রেলিয়ার। প্রথম কয়েকটা ওভার দুই ভারতীয় পেসারের সামনে একটু সাবধানে খেলা। সেট হওয়ার পরই প্রতি আক্রমণ। এবং দিনের শেষে বিশাল স্কোর। একই মাঠ, একই পিচ, আর একই কাণ্ডের পুনরাবৃত্তি ঘটাল অজিরা। দুর্দান্ত অর্ধশতরান করলেন ফিঞ্চ (৬০) এবং ওয়ার্নার (৮৩)। ফের শতরান করলেন স্মিথ। ফলে আগের দিনের মতোই ভারতের সামনে ৩৯০ রানের বিশাল লক্ষ্যমাত্রা।
দীর্ঘদিন বাদে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে ভারতীয় বোলাররা যেন কিছুতেই ছন্দ ফিরে পাচ্ছেন না। আর সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডের পিচও তেমন মদত দিচ্ছে তা শুরুতে। নেই সুইং, বাউন্সেও তেমন তারতম্য নেই। আর স্পিনাররা একেবারেই সাহায্য পাচ্ছেন না। যার জেরে ডেভিড ওয়ার্নার, অ্যারন ফিঞ্চ এবং সর্বোপরি স্টিভ স্মিথরা খেলছেন পিকনিকের মেজাজে। আগের ম্যাচের মতোই রবিবাসরীয় লড়াইয়ে অস্ট্রেলিয়া শুরুটা দারুন করেছিল। স্মিথ-ওয়ার্নারের ওপেনিং জুটি আরও একবার একশোর বেশি তুলে দিল। এবছরই এটা তাঁদের চতুর্থ শতরানের জুটি। যা কিনা রেকর্ড। শ্রেয়স আইয়ার দূর থেকে দুর্দান্ত থ্রো করে ওয়ার্নারকে
ফিঞ্চ অবশ্য আগেই আউট হয়েছিলেন। তাঁর জায়গায় ক্রিজে আসেন স্মিথ। যিনি কিনা ভারতের বিরুদ্ধে বরাবরই অন্য মেজাজে খেলেন। আগের ম্যাচেই সেঞ্চুরি করেছেন। ঠিক যেখানে আগের দিন শেষ করেছিলেন, এদিন সেখান থেকেই শুরু করলেন। আজ আরও একটা সেঞ্চুরি। তাও মাত্র ৬২ বলে। হার্দিক পাণ্ডিয়ার বলে স্মিথ যখন আউট হলেন তখন অজিদের স্কোর ২৯২ তিন উইকেটে। ওভার মাত্র ৪১। শেষ ৯ ওভারে খেল দেখালেন ম্যাক্সওয়েল (৬৩) এবং লাবুশানে। ৬১ বলে লাবুশানে করলেন ৭০। আর ম্যাক্সওয়েল করলেন মাত্র ২৪ বলে দুর্দান্ত অর্ধশতরান। অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস শেষ হল ৩৮৯ রানে।
৩ ম্যাচের সিরিজের প্রথমটি ইতোমধ্যেই হেরেছে ভারত। সেদিক থেকে দেখতে গেলে আজ ছিল মরণ-বাঁচন ম্যাচ। আর সিরিজ বাঁচানোর এই লড়াইয়ে জিততে হলে ভারতকে কার্যত অসাধ্যসাধন করতে হবে। কারণ, সিডনির মাঠে এত বড় স্কোর তাড়া করার নজির নেই।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন