সুস্থ ও স্বাভাবিক বেড়ে ওঠার জন্য শিশুকে ভিটামিন-‘এ’ খাওয়ান || অ্যাডভোকেসি সভায় বক্তারা

আপডেট: জুলাই ২১, ২০১৭, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


অ্যাডভোকেসি সভায় বক্তব্য দেন ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় কমিশনার মো. আমিনুল ইসলাম-সোনার দেশ

বিভাগীয় অ্যাডভোকেসি ও পরিকল্পনা সভায় বক্তারা বলেছেন, সুস্থ ও স্বাভাবিক বেড়ে ওঠার জন্য শিশুকে ভিটামিন-এ খাওয়ানো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ভিটামিন- এ শুধু রাতকানা রোগ সারে নাÑ শ্বাসতন্ত্র,পরিপাকতন্ত্র ও চর্মের আবরণকলাকে  সুরক্ষিত করে এবং চোখের স্বাভাবিক দৃষ্টি বজায় রাখে।
গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে পরিচালক (স্বাস্থ্য) এর কার্যালয়ের আয়োজনে অনুষ্ঠিত বিভাগীয় অ্যাডভোকেসি ও পরিকল্পনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় কমিশনার মো. আমিনুল ইসলাম এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপমহাপুলিশ পরিদর্শক  মাসুদুর রহমান ভূঁইয়া।  পরিচালক (স্বাস্থ্য) মো. আব্দুস সোবহান এতে সভাপতি করেন।
আগামী ৫ আগস্ট জাতীয় ভিটামি ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন সফলভাবে পালন করার লক্ষ্য এই অ্যাডভোকেসি ও পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বক্তারা বলেন, ভিটামিন- এ শরীরের প্রতিটি ক্ষেত্রে ভিটামি-এ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। ভিটামিন এ অপুষ্টিজনিত রোগ থেকে শিশুকে রক্ষা করে। প্রধান অতিথি এম আমিনুল ইসলাম তাঁর বক্তব্যে বলেন, স্বাস্থ্যই উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি। স্বাস্থ্য সুরক্ষায় আমাদের সকলকেই দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখতে হবে। জনগণের অর্থে আমাদের জীবন-জীবিকা নির্বাহ হয়।  আমরা যা করি তার চেয়েও বেশি কিছু করার সদিচ্ছা আমাদের সম্ভাবনা ও সমৃদ্ধিকে ত্বরান্বিত করবে। জাতিকে এগিয়ে নেয়ার দায়িত্ব সকলের। আমাদের শিশুদের ভবিষ্যত সুরক্ষিত হলে দেশের ভবিষ্যতও সুরক্ষিত হবে।
সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন, বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) এর কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ডা. ইসমত আরা। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ইউনিসেফ রাজশাহী বিভাগের প্রোগ্রাম অফিসার, রমা সাহা, রাসিক-এর প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা.এফএমএ আঞ্জুমান আরা বেগম ,সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক রুবিনা ইয়াসমিন, রামেক এর সহযোগী অধ্যাপক ডা, নাজনীন, ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপপরিচালক,এএকএম মনিরুল ইসলাম, গণযোগাযোগ অধিপ্তরের উপপরিচালক মো. শামসুজ্জামান, নওগাঁর সিভিল সার্জন ডা. রওশন আরা, নাটোরের সিভিল সার্জন ডা. মো. আজিজুল ইসলাম, ব্রাক প্রতিনিধি, জাহিদুল ইসলাম, সাংবাদিক আকবারুল হাসান মিল্লাত প্রমূখ।
সভায় বিষয়ভিত্তিক ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন, ডা. একেএম কামরুজ্জামান।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ