‘সূর্যবংশী’র সেটে মারামারিতে জড়ালেন অক্ষয় কুমার এবং রোহিত শেট্টি, কিন্তু কেন?

আপডেট: নভেম্বর ১৩, ২০১৯, ১২:৩০ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


রোহিত শেট্টির পরবর্তী ছবি ‘সূর্যবংশী’র সেট। হঠাৎই দু’দিক থেকে দৌড়ে এলেন অক্ষয় কুমার এবং রোহিত শেট্টি। ঝাঁপিয়ে পড়লেন একে অপরের উপর। তার পর কিল, ঘুসি, চড়… চলতে থাকল অনবরত। দু’জনকে থামাতে আশপাশ থেকে দৌড়ে এলেন বেশ কয়েকজন উর্দিধারী পুলিশ। ‘ফল আউট, ফল আউট’ বলে চিৎকার করতে করতে দু’জনেই পড়ে গেলেন মাটিতে।
কী হল হঠাৎ! কেন মারামারি শুরু করলেন অভিনেতা-পরিচালক? জানা গেল অক্ষয়ের পোস্ট থেকেই। জানালেন ক্যাটরিনা কইফ।
কিছু দিন আগে জনপ্রিয় এক ওয়েবসাইট ‘ব্রেকিং নিউজ’ তকমা লাগিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। সেই প্রতিবেদনের মুল বক্তব্য, ‘সূর্যবংশী’র শুট চলাকালীন অক্ষয় আর রোহিতের মধ্যে বেজায় মনোমালিন্য হয়েছে। দু’জনের মধ্যে কথাও বন্ধ। সহযোগী পরিচালকের মাধ্যমেই একে অন্যের সঙ্গে কথা বলেন।
কিন্তু পুরো ব্যাপারটাই যে একেবারে ভুল, কিছুই হয়নি রোহিত এবং অক্ষয়ের মধ্যে তা প্রমাণ করতেই এ রকম ‘ব্যঙ্গাত্মক’ ভিডিয়োর আশ্রয় নিয়েছে টিম ‘সূর্যবংশী’। ভিডিয়োটির শুরুতে দেখা যাচ্ছে, ওই সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হেডলাইনটি অতি নাটকীয় ভাবে পড়ছেন ক্যাটরিনা। এর পরেই ক্যামেরার ফোকাস ঘুরে যায় অক্ষয় আর রোহিতের দিকে। প্রতিবেদনের হেডলাইনে ‘ফল আউট’ শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছিল। আর সেই শব্দকেই খানিকটা উপহাস করেই খিলাড়ি কুমারকে বলতে শোনা গেল, “লড়না পড়েগা, লড়না পড়েগা…উই হ্যাড আ ফলআউট।”
অক্ষয় অনুরাগীরা তো প্রিয় অভিনেতার অভাবনীয় ভঙ্গিমায় ব্যঙ্গ করার ক্ষমতা দেখে হেসেই কুটোপাটি। কেউ লিখেছেন, ‘সত্যি, দিনটাই ভাল করে দিলে তুমি! আর হাসি চাপতে পারছিনা।” অক্ষয়ের ‘হাউজফুল ৪’-এর কো-স্টার কৃতি শেননও ওই ভিডিয়োতে পোস্ট করেছেন বেশ কয়েকটি হাসির ইমোজি। কেউ কেউ বা আবার লিখেছেন, ‘হলুদ সাংবাদিকতাকে কীভাবে ঠান্ডা মাথায় চুপ করাতে হয় তা তোমার থেকেই শেখা উচিত।”
অনেক বছর পর রোহিত শেট্টির ‘সূর্যবংশী’তে জুটি বেঁধেছেন অক্ষয়-ক্যাটরিনা। সব কিছু ঠিক থাকলে পরের বছর মার্চ মাসে মুক্তি পাবে ওই ছবি।