সেরা হওয়া নিয়ে সন্দেহ ছিল না রোনালদোর

আপডেট: জানুয়ারি ১১, ২০১৭, ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসিকে পেছনে ফেলে ব্যালন ডি’অর জেতার পর অনুমিতভাবেই ফিফার দেওয়া বর্ষসেরা পুরস্কারও জিতলেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। পর্তুগিজ এই ফরোয়ার্ডের মনেও সেরা হওয়া নিয়ে কোনো সন্দেহ ছিল না।
২০০৮ সালে প্রথম ফিফার বর্ষসেরা ও ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকীর ব্যলন ডি’অর পুরস্কার জিতেছিলেন রোনালদো। দুটি পুরস্কার একীভূত হওয়ার পর ২০১৩ ও ২০১৪ সালের ‘ফিফা ব্যালন ডি’অর’ জেতেন রিয়াল মাদ্রিদের এই ফরোয়ার্ড। দুটি পুরস্কার আলাদা হয়ে যাওয়ার পর ২০১৬ সালের ব্যালন ডি’অর জেতার পর ফিফার ‘দ্য বেস্ট মেনস প্লেয়ার’ হয়ে চতুর্থবারের মতো তিনি হলেন বর্ষসেরা ফুটবলার।
২০১৬ সালে রিয়াল মাদ্রিদ ও পর্তুগালের হয়ে খেলা ৫৭ ম্যাচে ৫৫ গোল করা রোনালদো বর্ষসেরার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, “এটা অবিশ্বাস্য; অবিশ্বাস্য। সত্যি বলতে, এই ট্রফি জয়ের ব্যাপারে আমি আত্মবিশ্বাসী ছিলাম এটা অবিশ্বাস্য ছিল।”
“যখন আপনি বছরজুড়ে কঠোর পরিশ্রম করবেন এবং যখন আপনি দলীয় এবং পরে ব্যক্তিগত পুরস্কার জিতবেন; আমার কাছে এটা অবিশ্বাস্য।”
মোট ভোটের ৩৪.৫৪ শতাংশ পেয়েছেন রোনালদো। পাঁচ বারের বর্ষসেরা মেসি পেয়েছেন ২৬.৪২ শতাংশ। তিন জনের সংক্ষিপ্ত তালিকায় থাকা অপর ফুটবলার আতলেতিকো মাদ্রিদের অঁতোয়ান গ্রিজমানকে ব্যালন ডি’অর পুরস্কারের মতো এখানেও দুই মহাতারকার পেছনে থাকতে হলো। ফরাসি এই ফরোয়ার্ড পেয়েছেন ৭.৫৩ শতাংশ ভোট।-বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ