স্কুলছাত্রীদের বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন দেবে ত্রিপুরা সরকার

আপডেট: জানুয়ারি ২১, ২০২১, ২:২৩ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন দেবে ত্রিপুরা সরকার। রাজ্যের মন্ত্রিসভা এই প্রস্তাবে সিলমোহর দিয়েছে বলে জানিয়েছেন ত্রিপুরার শিক্ষামন্ত্রী রতনলাল নাথ। রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্তকে কুর্ণিশ জানিয়েছে পড়ুয়ারাও। গত বছরের বাজেট অধিবেশনেই এই বিল এনেছিল ত্রিপুরার বিজেপি সরকার। সেখানে বলা হয়েছিল, ত্রিপুরায় ষষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণির দেড় লক্ষ ছাত্রী আছে। তাঁদের স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখে বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন দেওয়া হবে। এর জন্য ৪ কোটি টাকা বাজেট বরাদ্দ করা হয়। বিধানসভায় বিল পাশ হলেও মন্ত্রিসভার ছাড়পত্র পাওয়া বাকি ছিল। বুধবারই মন্ত্রিসভা এই প্রস্তাবে সিলমোহর দেয়। ফলে কয়েক মাসের মধ্যে এই প্রকল্পের কাজ শুরু হয়ে যাবে। এ প্রসঙ্গে ত্রিপুরার শিক্ষামন্ত্রী রতনলাল নাথ জানান, ছাত্রীদের স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখেই কিশোরী শুচিতা অভিযান প্রকল্প শুরু হচ্ছে। এই প্রকল্পে সুবিধা পাবে ১ লক্ষ ৬৮ হাজার ২৫২ জন পড়ুয়া। যার জন্য আগামী তিন বছর রাজ্যের কোষাগার থেকে ৩ কোটি ৬১ লক্ষ ৬৩ হাজার ২৪৮ টাকা খরচ হবে। উল্লেখ্য, ২০১৪–১৫ সালে কেন্দ্রীয় সরকার দেশে ন্যাশনাল হেলথ মিশনের অন্তর্গত রাষ্ট্রীয় কিশোর স্বাস্থ্য কার্যক্রম প্রকল্প কার্যকর করে। যেখানে বলা হয়েছিল গ্রামাঞ্চলের মেয়েরা ১ টাকার বিনিময়ে স্যানিটারি ন্যাপকিন পাবেন। আশাকর্মীরা এই ন্যাপকিন সরবরাহ করবেন। এতে ২০ শতাংশ ভর্তুকি দেবে কেন্দ্রীয় সরকার। সেই প্রকল্পকেই ত্রিপুরায় কার্যকর করল বিপ্লব দেবের মন্ত্রিসভা। তবে সেই প্রকল্পের নিয়মে কিছু রদবদল করা হয়েছে।
তথ্যসূত্র: আজকাল

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ