স্ত্রীর জ্বালাময়ী বক্তৃতার পর নওয়াজের জামাতা গ্রেফতার

আপডেট: October 19, 2020, 8:41 pm

সোনার দেশ ডেস্ক:


পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) এর ভাইস প্রেসিডেন্ট ও পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের মেয়ে মরিয়ম নওয়াজের স্বামী সফদার আওয়ানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ইমরান খানের পদত্যাগের দাবিতে চলমান বিক্ষোভে মরিয়ম জ্বালাময়ী ভাষণ দেয়ার পর তার স্বামীকে গ্রেফতার করা হলো।
ইমরান খান ও তার নেতৃত্বাধীন সরকারকে দেশ চালানোর অযোগ্য অভিহিত করে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিতে পাকিস্তান গণতান্ত্রিক আন্দোলন (পিডিএম) নামে বিরোধী জোট গঠন করে বিক্ষোভ করছে পিএমএল-এনসহ পাকিস্তানের ১১টি রাজনৈতিক দল। রোববার করাচিতে দ্বিতীয়বার বিশাল সমাবেশ করে ওই জোট।
দেশটির জাতীয় দৈনিক ডন অনলাইনের খবরে বলা হয়েছে, মরিয়ম নওয়াজ ওই বিক্ষোভ ইমরান খানের সরকারের পদত্যাগ দাবি করে জ্বালাময়ী ভাষণ দেয়ার পর করাচির একটি হোটেল থেকে তার স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে গত শুক্রবার দেশটির গুজরানওয়ালা শহরে প্রথমবার বিক্ষোভ সমাবেশ করেন বিরোধীরা।
মরিয়ম নওয়াজ সোমবার এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘করাচিতে আমি যে হোটেলে অবস্থান করছি পুলিশ জোরপূর্বক আমার সেই হোটেল কক্ষের তালা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করার পর ক্যাপ্টেন সফদারকে গ্রেফতার করেছে।’ তবে পুলিশ যে তাকে গ্রেফতার করেছে এ নিয়ে এখনও কোনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়া হয়নি।
এদিকে ক্ষমতাসীন দল পিটিআইয়ের নেতা ও পাকিস্তানের সমুদ্রসম্পদবিষয়ক মন্ত্রী আলী জিয়াদি বলেছেন, দমরিয়ম আবার মিথ্যা বলছেন। হোটেলের দরজা ভেঙে পুলিশ ঢোকেনি।‘ সফদারকে করাচির আজিজ ভাট্টি থানায় রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে ডন। করাচির সরকারবিরোধী বিক্ষোভ স্লোগান দিতে দেখা গিয়েছিল তাকে।
বিরোধীদলগুলো ইমরান খানকে সেনাবাহিনীর সঙ্গে আঁতাত করে ক্ষমতায় আসা ব্যর্থ প্রধানমন্ত্রী অভিহিত করে বিক্ষোভ, র‌্যালি ও প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করছে। রোববার করাচিতে প্রধান বিরোধীদলগুলোর নেতারা উপস্থিতি ছিলেন। জানুয়ারিতে ইসলামাবাদে লংমার্চের আগে আরও বিক্ষোভের পরিকল্পনা রয়েছে বিরোধীদের।
তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ