স্ত্রী-শাশুড়িসহ চারজনকে খুন করে আত্মহত্যা

আপডেট: জানুয়ারি ২০, ২০২০, ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায় স্ত্রী-শাশুড়িসহ চারজনকে খুন করে ঘাতক নিজেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। এ ঘটনায় প্রতিবেশী আরও এক নারীকেও কুপিয়ে জখম করা হয়েছে।
রোববার (১৯ জানুয়ারি) ভোরে উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের পাল্লারতল এলাকার চা-বাগান এলাকা থেকে একই পরিবারের তিন সদস্যসহ পাঁচজনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
নিহতরা হলেন-নির্মল, তার স্ত্রী জলি (২৬), শাশুড়ি লক্ষ্মী (৪৩), প্রতিবেশী বসন্ত (৩৭) ও বসন্তের মেয়ে শিউলি (৬)। নিহতরা একই এলাকার বাসিন্দা ও চা-শ্রমিক।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নির্মল নামে এক চা-শ্রমিক মাদকাসক্ত। দীর্ঘদিন ধরে তাদের পারিবারিক কলহ চলে আসছিল। শনিবার (১৮ জানুয়ারি) মাঝরাতে মদপান করে নির্মল নিজ বাড়িতে এসে ঝগড়া শুরু করেন। পরে নির্মল ক্ষিপ্ত হয়ে দেশীয় ধারালো দা দিয়ে প্রথমে তার স্ত্রী ও শাশুড়িকে কুপিয়ে জখম করেন। তাদের চিৎকার শুনে নির্মলকে ঠেকাতে প্রতিবেশী বসন্ত এগোলে তাকে ও তার মেয়ে শিউলিকে কুপিয়ে জখম করেন। একপর্যায়ে চারজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হলে নির্মল নিজের ঘরে গিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। এ সময় বসন্তের স্ত্রীও আহত হয়েছেন বলে জানা যায়।
বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াসিনুল হক বাংলানিউজেকে বলেন, পারিবারিক কলহের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। মরদেহগুলো উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হচ্ছে। বিস্তারিত পরে জানানো হবে।
ঘটনাস্থল পরিদর্শনের মৌলভীবাজার পুলিশ সুপার (এসপি) ফারুক আহমদ ও কুলাউড়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার কাউসার দস্তগীর রয়েছেন বলেও জানান তিনি।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ