স্থানীয় বাস্কেটবল লিগ শুরু, উদ্বোধনী দিনে উপশহরের জয়

আপডেট: জুলাই ১১, ২০১৭, ১২:৪২ পূর্বাহ্ণ

ক্রীড়া প্রতিবেদক


লিগের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্য দেন, জেলা প্রশাসক ও রাজশাহী জেলা ক্রীড়া সংস্থার নবাগত সভাপতি মো. হেলাল মাহমুদ শরীফ-সোনার দেম

রাজশাহী জেলা ক্রীড়া সংস্থার অর্থায়নে ও জেলা বাস্কেটবল সমিতির পরিচালনায় ১ম বিভাগে ৮টি ও প্রিমিয়ার বিভাগে ৮টি মোট ১৬টি দল নিয়ে গতকাল জেলা জিমনাসিয়ামে প্রিমিয়ার ও ১ম বিভাগ বাস্কেটবল লিগ শুরু হয়েছে।
উদ্বোধনী দিনে উপশহর স্পোর্টিং ক্লাব ৭১-১৭ পয়েন্টে টাউন ক্লাব হারিয়েছে। বিজয়ী দলের অমিত ১৮ ও বাবু ১২টি স্কোর করে। বিজিত দলের অপু ৮টি স্কোর করে। আজকের খেলায় মোকাবিলা করবে ঈগলেটস ক্লাব, মেট্রোপলিটন ক্লাব, তরুণ সংঘ ও কসমস স্পোর্টিং ক্লাব।
জেলা বাস্কেটবল সমিতির সভাপতি মো. ফরিদ উদ্দিনের সভাপতিত্বে এই লিগের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক ও রাজশাহী জেলা ক্রীড়া সংস্থার নবাগত সভাপতি মো. হেলাল মাহমুদ শরীফ। এর আগে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্টেডিয়ামে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি বলেন, রাজশাহীতে ৩৩টি ইভেন্টের খেলা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। আমি প্রতিটি খেলা দেখতে চায়। আমরা সকলে মিলে প্রতি সপ্তাহে ছুটির দিন সকলে মিলে অন্তত্বপক্ষে ১টি স্কুলে গিয়ে তাদের খেলার সামগ্রী দিয়ে আসতে পারি। যাতে করে স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা পড়াশুনার পাশাপাশি খেলাধুলা করতে পারে। এছাড়াও তিনি একটি উপজেলার কথা উল্লেখ করে বলেন সেখানো মাঠে ঘাস জমে আছে। কিন্ত খেলাধুলার কোন উদ্যোগ নেয়, কাজেই আমরা প্রতিটি মাঠকে ফাঁকা রাখা হবে না। শুধু খেলাধুলার অনুশীলন চালাবো বলেও তিনি মত প্রকাশ করেন।
তিনি বলেন, অর্থের অভাব নাই সরকার প্রতিটি জেলায় প্রচুর অর্থ বরাদ্দ দিয়ে থাকে। সেই অর্থ খরচ হয় না। কাজেই বরাদ্দকৃত অর্থ দ্বারা আমরা জেলার প্রতিটি স্কুলের মাঠে খেলাধুলা নিয়মিত চালাতে পারি। কিন্ত সংগঠকবৃন্দের পুরো সহযোগিতা থাকতে হবে। এতে করে নতুন নতুন খেলোয়াড় তৈরি হবে, যা রাজশাহী তথা দেশের খেলাধুলার উন্নয়নে কাজে লাগবে।
বক্তব্য শেষে তিনি প্রতিটি ক্লাব কর্মকর্তাদের হাতে ১টি করে বাস্কেটবল ও ১৫ হাজার টাকার চেক তুলে দেন। এর আগে পুলিশ সুপার ও রাজশাহী জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহসভাপতি মোহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেন ভূঞা বলেন, শুধু ক্রিকেট, ফুটবল খেলার প্রতি মনোযোগ দিলে চলবে না। আমাদের বাস্কেটবলসহ সব খেলার উপর গভীরভাবে মনোযোগ দিতে হবে।
এছাড়াও অনুষ্ঠানে রাজশাহী বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ জামাল, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক রফিউস সামস প্যাডি, যুগ্মসম্পাদক খায়রুল আলম ফরহাদ, রেজাউল ইসলাম বাবুল উপস্থিত ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ