‘স্বল্প পোশাকের পুরুষ দেখলে মেয়েদেরও মন চঞ্চল হয়’, ইমরানের বিতর্কিত মন্তব্যের জবাব তসলিমার

আপডেট: জুন ২২, ২০২১, ৯:১৯ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


কোনও নারী যদি স্বল্পবসনা হয়, তাহলে তাকে দেখলে পুরুষদের চিত্ত চঞ্চল হওয়াই স্বাভাবিক। যদি না সে রোবট হয়। ধর্ষণ বাড়ার কারণ সম্পর্কে বলতে গিয়ে এমনই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। মঙ্গলবার তাঁর মন্তব্যই তাঁকে কার্যত ফিরিয়ে দিলেন তসলিমা নাসরিন।
Axios on HBO-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ওই মন্তব্য করেছেন ইমরান। মঙ্গলবারের টুইটে ইমরানকে পালটা দিলেন তসলিমা। যুবক ইমরানের ঊর্ধাঙ্গ অনাবৃত একটি ছবি তিনি পোস্ট করেছেন। সেই সঙ্গে পাক প্রধানমন্ত্রীকে খোঁচা দিয়ে লিখেছেন, ‘‘যদি কোনও পুরুষ স্বল্পবসন থাকেন, তাহলে তাতে মহিলাদের চিত্তচাঞ্চল্য হতে পারে, যদি না তারা রোবট হয়।’’
আন্তর্জাতিক বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যমে দেওয়া ওই সাক্ষাৎকারে পাকিস্তানে বেড়ে চলা ধর্ষণের ঘটনা নিয়ে ইমরানকে বলতে শোনা গিয়েছিল, যদি একজন মহিলা খুবই অল্প পোশাক পরে ঘুর বেড়ান, তবে তার প্রভাব একজন পুরুষের উপর পড়তে বাধ্য। এর ফলে মন চঞ্চল হতে পারে পুরুষের। যদি না তিনি রোবট হন। এটা কমন সেন্সের ব্যাপার।” সেই সঙ্গে তিনি বলেন, “কামনা বা বাসনা সংবরণ করার জন্যই পর্দা প্রথার প্রচলন হয়েছে। তবে এই সংবরণের জন্য যে ইচ্ছাশক্তি দরকার, তা সবার নেই।”
পাক প্রধানমন্ত্রীর এহেন কুরুচিকর মন্তব্যে শুধু পাকিস্তান নয়, গোটা দুনিয়ায় নিন্দার ঝড় বয়ে গিয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন নেটিজেনদের একাংশ। এই ঘটনার মাস খানেক আগেও পাকিস্তানে বাড়তে থাকা ধর্ষণের ঘটনার কারণ হিসেবে ‘অশালীনতা’কে দায়ী করেছিলেন ইমরান। এপ্রিলে পাক প্রধানমন্ত্রীর সেই মন্তব্যের প্রতিবাদে লিখিত ভাবে ক্ষমা প্রার্থনা করেছিল পাক নাগরিকদের একটি অংশ।
এদিকে, এই ঘটনায় ড্যামেজ কন্ট্রোলে মাঠে নেমেছেন ইমরান। প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল মিডিয়া প্রতিনিধি ড. আরসালান খালিদ টুইট করে দাবি করেন, গোটা বিষয়টির ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে। ইমরান খানের বক্তব্যের নির্দিষ্ট কিছু অংশ তুলে ধরে ব্যাপারটা নিয়ে বিতর্ক তৈরি করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই ইমরানের এই মন্তব্যের সমালোচনায় মুখর হয়েছে বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতারা। এবার ‘খোঁচা’ দিলেন তসলিমাও।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ