স্বাধীনতা চেয়ে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে মিছিল

আপডেট: আগস্ট ২১, ২০১৭, ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


স্বাধীনতার স্লোগান তুলে এ বার মানুষের ঢল নামল পাক অধিকৃত কাশ্মীরের রাস্তায়। শুক্রবার জান্দালিতে এক গণমিছিলে সামিল হন সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ। পাক শাসন থেকে মুক্তির দাবিতে সরব হন তাঁরা। পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের স্বাধীনতার দাবিতে পথে নামার ডাক দিয়েছিল বামপন্থী ছাত্র সংগঠন ‘দ্য জম্মু-কাশ্মীর ন্যাশনাল স্টুডেন্টস ফেডারেশন’। সংগঠনের অভিযোগ ছিল, ১৯৪৭ সালে দেশভাগের পর থেকেই পাকিস্তান তাদের দখলে থাকা কাশ্মীরের অংশ লুটেপুটে খাচ্ছে। নিরন্তর সেখানে কাশ্মীরিরা শোষণের শিকার হচ্ছেন।
এ দিন মিছিলের শেষে সমাবেশে স্থানীয় নেতা লিয়াকত খান অভিযোগ করেন, ‘‘প্রতিভা ও ক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও পাক সরকারের দমননীতির জন্যই কাশ্মীরের পড়ুয়ারা আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে পিছিয়ে রয়েছে।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘শিক্ষা, স্বাস্থ্যের মতো জরুরি পরিষেবার অভাবে ধুঁকছে কাশ্মীর। এখানে এখনও বহু জায়গায় রাস্তা নেই, কল-কারখানা নেই, এমনকী উপত্যকায় ইচ্ছেমতো বই পড়ারও অনুমতি নেই। পড়াশোনার উপরে অলিখিত নিষেধাজ্ঞা জারি করে রেখেছে সরকার। পাক-অধিকৃত কাশ্মীরে নির্বাচনটা প্রহসন মাত্র।’’
বস্তুত, ২০১৬ সালের নির্বাচনে শাসক দল পিএমএল(এন)-এর বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ব্যাপক রিগিং করে ভোট করিয়েছে তারা। সাধারণ মানুষ বুথ থেকে ভোট না দিয়েই ফিরে গিয়েছেন। আর এক স্থানীয় নেতার দাবি, ‘‘দীর্ঘ দিন ধরে কাশ্মীরে জঙ্গি ঢুকিয়ে শান্তি নষ্ট করা হচ্ছে। এ সবই কাশ্মীরকে দমিয়ে রাখার লক্ষ্যে রাজনৈতিক চাল।’’
তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ