স্বাস্থ্য সেবায় একধাপ উন্নয়ন || উদ্বোধনের অপেক্ষায় নওগাঁ ২৫০ শয্যা হাসপাতাল

আপডেট: মার্চ ৯, ২০১৭, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ

এমআর রকি, নওগাঁ



নওগাঁয় নবনির্মিত ২৫০ শয্যা সরকারি হাসপাতাল ভবন নির্মাণ কাজ শেষে উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে। ৩৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে নবনির্মিত এ হাসপাতাল ভবনটিতে আধুনিক মানের সেবা পাবে রোগিরা। আগামী জুন মাসে সরকারি এ হাসপাতাল ভবনটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হবে। প্রান্তিক মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে নবনির্মিত হাসপাতালটি নির্মাণের ফলে স্বাস্থ্যসেবায় নওগাঁ এক ধাপ এগিয়ে যাবে বলে মনে করছে স্থানীয়রা।
নওগাঁর ১১টি উপজেলাসহ পার্শবর্তী দুইটি জেলার নিকটবর্তী হওয়ায় নওগাঁয় প্রতিদিন চিকিৎসা সেবা নিতে আসেন কয়েক হাজার রোগি। কিন্তু বর্তমান ১শ শয্যা বিশিষ্ট নওগাঁ সরকারি হাসপাতালে নানা সঙ্কটে ভালো মানের সেবা পাচ্ছে না রোগিরা। ডাক্তার নার্স প্রয়োজনীয় অবকাঠামোসহ বেড সঙ্কটে অনেক রোগিকে স্থানান্তর করতে বাধ্য হচ্ছে এখানকার দায়িত্ব পালনকারীরা। এ অবস্থায় প্রান্তিক মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে ২৫০ শয্যার এ হাসপাতালটি ২০১৩ সালের নভেম্বর মাসে নির্মাণ কাজ শুরু হয়। বর্তমানে ৯০ ভাগ নির্মাণ কাজ শেষ পর্যায়ে আগামী জুনে নবনির্মিত এ ভবন উদ্বোধন করে সেবা কার্যক্রম চালু হবে আশা করছে নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান।
নওগাঁ গণপূর্ত নির্বাহী প্রকৌশলী বাকি উল্লাহ জানান, সাত তলা পর্যন্ত নির্মাণ কাজ শেষে এখন ভবনের ভেতর ও বাইরে চুনকামসহ বাকী কাজ চলছে। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, জুনের মধ্যে ভবনের সব কাজ সম্পন্ন হবে। নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান ফরিদ উদ্দিন জেবি কনস্ট্রাকশনের ম্যানেজার মুনজুরুল ইসলাম জানান, আমরা দ্রুতগতিতে কাজ করছি, যেন আগামী জুনে ভবনটি সব কাজ শেষ হস্তান্তর করা যায়।
স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অপারেশন প্লান প্রকল্পের অধীনে ৩৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে ৮ তলা বিশিষ্ট এ হাসপাতাল ভবনটি হবে আধুনিক মানের। এখানে অপারেশন থিয়েটারসহ ডাক্তারের একাধিক কক্ষ থাকবে। প্রথম পর্যায়ে সাত তলা পর্যন্ত বরাদ্ধ হয়। এরপর আরো এক তলা সংযোজন করা হয়। এর ফলে নির্মাণ ব্যয়সহ কাজের সময় কিছুটা বৃদ্ধি পায় বলে সংশ্লিষ্ট দফতর জানায়। উদ্বোধন হলে জেলার স্বাস্থ্যসেবা আরো একধাপ এগিয়ে যাবে ও সুফল মিলবে বলছে স্থানীয়রা।
নওগাঁ জেলা  সিভিল সার্জন ডা. রওশন আরা খানম জানান, এ হাসপাতাল নির্মাণের ফলে অনেক বেশি মানুষ স্বাস্থ্য সেবার আওতায় আসবে। নওগা ড্রাগ অ্যান্ড কেমিস্ট সমিতির সভাপতি আতাউর রহমান বলেন, বর্তমান সরকার স্বাস্থ্যসেবা তৃনমূল পর্যায়ে পৌঁছে দিতে যেসব উন্নয়ন কাজ করছে তা সতিই প্রশংসনীয়। এ হাসপাতাল ভবন নির্মাণের ফলে জেলার স্বাস্থ্যসেবা অনেক দূর এগিয়ে যাবে। নওগাঁসহ পার্শবর্তী জেলার প্রায় ৪০ লাখ মানুষ এ হাসপাতালের সেবা পাবে বলে মনে করছে জেলা সিভিল সার্জন ও ড্রাগ অ্যান্ড কেমিস্ট সমিতির এ নেতা।
নবনির্মিত ২৫০ শর্যার এ হাসপাতাল নির্মাণের ফলে স্বাস্থ্যসেবা আরো এক ধাপ উন্নয়ন হবে বলে মনে করছে জেলাবাসী।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ