স্মার্ট রাজশাহী বিনির্মানের স্মারথি হিসেবে কাজ করবো: অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা

আপডেট: জানুয়ারি ৮, ২০২৪, ১১:০০ অপরাহ্ণ

বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতি ও শহিদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামানের সমাধীতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহী-২ (সদর) আসনে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি স্বতন্ত্র প্রার্থী অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন।

বিজয়ের পরপরই সোমবার (৮ জানুয়ারি) নগরীর কুমারপাড়াস্থ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগর কার্যালয়ের স্বাধীনতা চত্বরে বঙ্গবন্ধু সহ জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। বেলা ১২টায় কাদিরগঞ্জস্থ জাতীয় নেতা শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামান এঁর সমাধীতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন।

এসময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে রাজশাহী-২ (সদর) আসনে রাজশাহী মহানগর আ’লীগের সহ-সভাপতি স্বতন্ত্র প্রার্থী অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা বলেন, কাঁচি প্রতীকে ভোট দিয়ে বিপুল ভোটের ব্যবধানে আমাকে জয়ী করে সাধারণ মানুষ প্রমাণ করেছেন, মানুষ উন্নয়নের পক্ষে।

জনবিচ্ছিন্ন নৌকার ভুয়া মাঝি পাল্টে গিয়ে আসল মাঝির জয় হয়েছে। এখন আমি মানুষের জন্য কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। স্মার্ট রাজশাহী বিনির্মানের স্মারথি হিসেবে কাজ করবো।

তিনি আরও বলেন, মানুষ উন্নয়ন চাই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সারাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। রাসিক মেয়র আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে রাজশাহীকে সাজিয়ে তুলছেন।

কিন্তু এই আসনে বিগত দিনে যিনি সংসদে প্রতিনিধিত্ব করেছেন, তিনি উন্নয়নের সহযোগী না হয়ে কোটারি রাজনীতি করেছেন। একারণেই সাধারণ মানুষ তার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে। আমি প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন স্মারথি হয়ে কাজ করবো।

এরআগে, নেতা-কর্মীরা ফুল দিয়ে বরণ করে নেন নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশাকে। এসময় নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন তিনি। এছাড়া বিকেল ৫ টা থেকে রাত পর্যন্ত বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. আসলাম সরকার, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক মীর তৌফিক আলী ভাদু, আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. মুসাব্বিরুল ইসলাম, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ফিরোজ কবির সেন্টু, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক জিয়া হাসান আজাদ হিমেল, শ্রম সম্পাদক আব্দুস সোহেল, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা ইয়াসমিন রেজা ফেন্সি, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক কামারউল্লাহ সরকার কামাল, কোষাধ্যক্ষ হাবিবুল্লাহ ডলার, সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আব্দুল মান্নান, আতিকুর রহমান কালু, হাফিজুর রহমান বাবু, আব্দুস সালাম, ইউনুস আলী, মোখলেশুর রহমান কচি, থানা আওয়ামী লীগের মধ্যে রাজপাড়ার থানার সাধারণ সম্পাদক শেখ আনসারুল হক খিচ্চু, বোয়ালিয়া থানা (পূর্ব) সাধারণ-সম্পাদক শ্যামল কুমার ঘোষ, বোয়ালিয়া থানার (পশ্চিম) সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান রতন, শাহ্ মখদুম থানার সাধারণ সম্পাদক শাহাদত আলী শাহু, মতিহার থানার সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন, নগর শ্রমিক লীগ সভাপতি মাহাবুবুল আলম, সাধারণ সম্পাদক আকতার আলী, নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আব্দুল মোমিন, নগর যুবলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তৌরিদ আল মাসুদ রনি, নগর যুব মহিলা লীগ সভাপতি আ্যাড. ইসমত আরা, সাধারণ সম্পাদক নিলুফার ইয়াসমিন নিলু প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ