স্মৃতিতে অমলিন অধ্যাপক রেজাউল করিম সিদ্দিকী || জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বিশেষ প্রদর্শনী

আপডেট: জানুয়ারি ৮, ২০১৭, ১২:১২ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক



রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রয়াত অধ্যাপক রেজাউল করিম সিদ্দিকীর স্মৃতি বিজরিত বিভিন্ন আসবাবপত্র, ব্যবহৃত সঙ্গীত যন্ত্রপাতি, সংগৃহীত বই, ফিল্ম নিয়ে এক প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার তার পরিবারের উদ্যোগে নিজ বাসার ছাদে অধ্যাপক রেজাউল করিম সিদ্দিকীর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।
গতকাল প্রদর্শনীতে গিয়ে দেখা যায় তৈরি করা হয়েছে বেশ কয়েকটি স্টল। স্টল ঘুরে কেউবা অধ্যাপক রেজাউল করিমের সংগ্রহে থাকা বইগুলো দেখছেন। কেউ দেখছেন তার ব্যবহৃত তানপুরা, হারমনিয়াম ও তবলা। পাশেই ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে তার বিশেষ মুহুর্তগুলোর ছবি। বড় পর্দায় প্রদর্শন করা হচ্ছে তার ধারণ করা বিভিন্ন ভিডিও।
পরিবার জানায়, ১৯৫৫ সালের ৭ জানুয়ারি রাজশাহী জেলার বাগমারা থানার দ্বীপপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। এরপর রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুল থেকে ১৯৬৯ সালে ম্যাট্রিক ও রাজশাহী কলেজ থেকে ১৯৭২ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেন। ১৯৭৪ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ভর্তি হন। পরে ১৯৮৩ সালে ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক হিসেবে যোগ দেন।
প্রদর্শনী দেখতে শনিবার সকাল থেকেই তার বাড়িতে আসতে থাকেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, গ্রামের বাড়ির লোকজন এবং এলাকাবাসী। এসময় তার ব্যবহৃত এসব জিনিসপত্র, বই, ছবি দেখে অনেকেই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।
অধ্যাপক রেজাউল করিম সিদ্দিকীর ছেলে রিয়াসাত ইমতিয়াজ সৌরভ বলেন, ‘বাড়ির ছাদে মোট চারটি স্টল ও ছয়টি সেগমেন্টে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। প্রথম স্টলে তার সংগ্রহে থাকা বিভিন্ন বই-ম্যাগাজিন, দ্বিতীয় স্টলে তার গ্রামোফোন, তৃতীয় স্টলে তার সংগ্রহে থাকা ডকুমেন্টরি ও মুভি কালেকশন এবং চতুর্থ স্টলে তার ব্যবহৃত বিভিন্ন মিউজিক্যাল ইন্সট্রুমেন্ট প্রদর্শন করা হয়। এছাড়া একটি বড় পর্দায় বাবার তৈরি ভিডিও ডকুমেন্টরি ও ছবি প্রদর্শন করা হয়েছে এবং তার লেখা বিভিন্ন কবিতা দেয়ালিকা আকারে প্রদর্শন করা হয়েছে।’
সৌরভ আরো বলেন, ‘বাবার স্মৃতি ও তার ধ্যান-ধারণা, চিন্তা-চেতনাকে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতেই মূলত এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। সকাল নয়টা থেকে সন্ধা সাতটা পর্যন্ত এ প্রদর্শনীতে অনেকেই এসেছিলেন। বাবার সংগ্রহ দেশি বিদেশি অনেক লেখকের বই ছিলো। তিনি সবাইকে বই পড়তে আগ্রহী করতেন। প্রদর্শনীতে এমন অনেক বই আছে যেগুলো খুবই দূর্লভ।’
প্রদর্শনীতে জীবন-জীবিকা এবং গ্রামের বিভিন্ন মেলা নিয়ে তার তৈরি ডকুমেন্টারি দেখানো হয়েছে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে বিলসতি, লালন মেলা, খেতুর মেলা, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের অবস্থাসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক বিষয়ের উপর ডকুমেন্টারি। এছাড়া তার সম্পাদনায় প্রকাশিত মাসিক সাহিত্যপত্র ‘কোমলগন্ধার’ এবং তার লেখা অনেক প্রবন্ধও প্রদর্শনীতে সাজানো ছিলো।
উল্লেখ্য, গতবছর ২৩ এপ্রিল নগরীর শালবাগান এলাকায় কুপিয়ে হত্যা করা হয় অধ্যাপক রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে। এ ঘটনায় ওইদিন বিকালে নগরীর বোয়ালিয়া থানায় অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে একটি হত্যামামলা দায়ের করেন তারা ছেলে রিয়াসাত ইমতিয়াজ সৌরভ। এ মামলায় ৮ জেএমবি সদস্যের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেছে পুলিশ।