হকি ওয়ার্ল্ড লিগে মুখোমুখি বাংলাদেশ-মালয়েশিয়া

আপডেট: মার্চ ৪, ২০১৭, ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



মালয়েশিয়ার বিপক্ষে আজ শনিবার বিকাল চারটায় হকি ওয়ার্ল্ড লিগ রাউন্ড-২-এ যাত্রা শুরু করবে বাংলাদেশ।  যেখানে টুর্নামেন্টর শীর্ষ বাছাই মালয়েশিয়ার বিপক্ষে জয়ের প্রত্যাশা করছে না স্বাগতিকরা তবে প্রতিপক্ষকে বিন্দুমাত্র ছাড় না দিয়ে যোগ্যতার শেষ বিন্দু দিয়ে লড়াই করার জন্যই মাঠে নামবে জিমি-চয়নরা।
মালয়েশিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অতীতে বলার মতো কোনও সাফল্য নেই। গত এশিয়ান গেমসে ৫-১ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ। টুর্নামেন্টের শীর্ষ দল মালয়েশিয়ার বিশ্ব র‌্যাংকিং ১৩, বাংলাদেশের ৩২।
বাংলাদেশের জার্মান কোচ অলিভার কার্টজের বিশ্বাস তার দল দুই দিনের বিশ্রামে ঝেড়ে ফেলেছে সব ক্লান্তি, ‘ফুরফুরে মেজাজে মাঠে নামবে বাংলাদেশ, মালয়েশিয়ার বিপক্ষে আমাদের হারাবার কিছু নেই, তবে আমরা তাদের কৌশলের বিপক্ষে সতর্কতার সঙ্গে খেলবো। লক্ষ্য থাকবে ম্যাচ ড্র করার দিকেই, শুরুতে টুর্নামেন্টের শীর্ষ দলের বিপক্ষে খেলার সুবিধা হলো খেলোয়াড়রা নিজেদের ভুল পরবর্তীতে শুধরে নিতে পারে। আমাদের লক্ষ্য দ্বিতীয় স্থান তাই সবদিক থেকেই ম্যাচটি আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।’
অন্যদিকে মালয়েশিয়ান কোচ স্টিফেন ফন হুইজেন নিজ মাঠে বাংলাদেশকে দেখছেন কঠিন প্রতিপক্ষ হিসেবে, ‘বাংলাদেশের সাম্প্রতিক খেলাগুলো আমি দেখেছি, নিজ মাঠে খেলবে তারা।। বাংলাদেশকে আমরা প্রতিপক্ষ হিসেবে সমীহ করি। আমরা জয় দিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু করতে চাই, সর্বশক্তি দিয়েই ম্যাচ জয়ের চেষ্টা করবো।’
বাংলাদেশের ম্যাচটি দিনের চতুর্থ ও শেষ ম্যাচ। এর আগে সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে খেলবে চিন ও ঘানা, ১১টা ৩০ মিনিটে মিশর ও শ্রীলঙ্কা, ১টা ৪৫ মিনিটে  খেলবে ওমান ও ফিজি।
এদিকে হকি ওয়ার্ল্ড লিগ রাউন্ড-২ প্রসঙ্গ উঠতেই জিমিদের চোখে ভেসে উঠবে প্রথম আসরের কথা। সেবার বাংলাদেশ দ্বিতীয় রাউন্ডে চমক দেখিয়েছিল চিনকে হারিয়ে। শেষ পর্যন্ত লাল সবুজ জার্সিধারীরা গ্রুপে তৃতীয় হয়েছিল চিন আর ওমানকে পেছনে ফেলে। ২০১৩ সালে দিল্লিতে আয়ারল্যান্ডের কাছে না হারলে বাংলাদেশের হকির ইতিহাসটা লেখা হতো অন্যভাবে। প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের কাছে হারাতেই হয়ে যায় সর্বনাশ। দুর্দান্ত খেলা বাংলাদেশের রাসেল মাহমুদ জিমি হয়েছিলেন দিল্লি পর্বের সেরা মিডফিল্ডার।
২০১৫ সালে সিঙ্গাপুরে দ্বিতীয় আসরটা ভালো কাটেনি বাংলাদেশের, ৮ দেশের মধ্যে ষষ্ঠ হয়ে ঘরে ফিরেছিল লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। এবার সেই পর্বটি ঘরের মাঠেই খেলবেন জিমি-চয়নরা। দ্বিতীয় রাউন্ডের আয়োজক হওয়ায় এবার বাংলাদেশকে খেলতে হয়নি প্রথম পর্ব। এবার দ্বিতীয় পর্ব রাঙিয়ে দেয়ার ভালো সুযোগ বাংলাদেশের সামনে। আজ শনিবার মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে শুরু হবে ৮ জাতির এ হকি টুর্নামেন্ট। বাংলাদেশে এটাই হচ্ছে সব চেয়ে বড় মাপের টুর্নামেন্ট।
দ্বিতীয় রাউন্ডে ২৪ দেশ খেলছে ৩ ভেন্যুতে। ঢাকায় বাংলাদেশের সঙ্গে আছে ৭ অতিথি দেশ-মালয়েশিয়া, চীন, ওমান, মিশর, ফিজি, ঘানা ও শ্রীলঙ্কা। ‘এ’ গ্রুপে বাংলাদেশের সঙ্গী মালয়েশিয়া, ওমান ও ফিজি। বাকি দলগুলো ‘বি’ গ্রুপে। ঢাকা পর্ব থেকে দুটি দল পাবে সেমিফাইনাল বা তৃতীয় রাউন্ডের টিকিট। যদিও ঠিক কয়টি দেশ উঠবে পরের রাউন্ডে তা নিয়ে আছে ধোঁয়াশা। বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবদুস সাদেক শুক্রবার গণমাধ্যমকে বলেছেন,‘আমাদের কাছে যে কাগজ-পত্র এসেছে তাতে উল্লেখ আছে দুটি দল যাবে পরের রাউন্ডে। তবে এর বাইরেও কিছু হিসেবে আছে। তা বোঝা যাবে অন্য ৩ ভেন্যুর খেলার উপর।’
ঢাকায় যে দেশগুলো খেলছে তার মধ্যে র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে মালয়েশিয়া। দেশটির অবস্থান পাকিস্তানেরও উপরে ১৩ নম্বরে। এর পর ১৮ নম্বরে চীন। মিশর আছে ২০ নম্বরে, ওমান ৩১ এবং বাংলাদেশ ৩২। র‌্যাঙ্কিং বলে দিচ্ছে দ্বিতীয় রাউন্ড টপকানো কঠিন বাংলাদেশের জন্য।-বাংলা ট্রিবিউন ও জাগোনিউজ