হাথরাসের মর্মান্তিক দুর্ঘটনার পর প্রথমবার প্রকাশ্যে এলেন ‘ভোলে বাবা’

আপডেট: জুলাই ৬, ২০২৪, ১২:৩০ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


হাথরাসে মর্মান্তিক পদপিষ্ট হওয়ার ঘটনায় ইতিমধ্যে মারা গিয়েছেন ১২১ জন মানুষ। এই ঘটনার পর এবার প্রথম নিজের বক্তব্য জানালেন স্বঘোষিত ধর্মগুরু ভোলে বাবা। একটি ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, ২ জুলাই যা ঘটেছে, তারপর আমি গভীর ভাবে ব্যথিত।

প্রভু আমাদের এই কঠিন পরিস্থিতি পেরিয়ে যাওয়ার শক্তি দিন। প্রশাসনের উপর আস্থা রাখতে হবে। আমার বিশ্বাস, যাঁরা এই ঘটনার নেপথ্যে রয়েছেন, যাঁরা প্রকৃত দোষী, তাঁদের শাস্তি হবে। আমি আমার উকিল এপি সিংহের মাধ্যমে মৃতদের পরিবার এবং আহতদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য কমিটির সদস্যদের অনুরোধ করেছি।

অন্যদিকে উত্তর প্রদেশ পুলিশ হাথরাসে পদপিষ্ট হয়ে মৃত্যুর মর্মান্তিক ঘটনায় মূল অভিযুক্ত দেব প্রকাশ মধুকরকে গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশের দায়ের করা এফআইআরে মূল অভিযুক্ত হিসেবে মুখ্য সেবাদার দেব প্রকাশের নাম উঠে আসে। উল্লেখ্য, এর আগের দিনই পুলিশ এই ঘটনায় আরও ৬ জনকে গ্রেপ্তার করে। তারা সকলেই সৎসঙ্গ আয়োজক কমিটির সদস্য।

প্রসঙ্গত, ২ জুলাই হাথরাসে স্বঘোষিত ধর্মগুরু নারায়ন সরকার হরি ওরফে ভোলে বাবার সৎসঙ্গে ভিড়ের চাপে পদপিষ্ট হয়ে ১২১ জনের মৃত্যু হয়। আহত হন বহু। ওই অনুষ্ঠানে ৮০ হাজার মানুষের জমায়েতের অনুমতি দেওয়া হলেও, আড়াই লক্ষের’ও বেশী ভক্ত সমাবেত হয়েছিলেন বলে পুলিশ সূত্রে খবর।
তথ্যসূত্র: আজকাল অনলাইন

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ