হামলায় আহত বড়াইগ্রামে ছাত্রলীগ নেতা চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু

আপডেট: জুন ৩০, ২০২৪, ১০:২৪ অপরাহ্ণ

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি:


নাটোরের বড়াইগ্রামে বাবাকে উদ্ধার করতে গিয়ে আশিক সরকার (২৭) নামের এক ছাত্রলীগ নেতাকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গত ১৬জুন বিকেলে উপজেলার চান্দাই বাজারে তাকে কুপিয়ে জখম করলে রোববার (৩০জুন) সন্ধ্যায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। নিহত আশিক সরকার চান্দাই গ্রামের মিরন সরকারের ছেলে ও চান্দাই ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক। এঘটনায় মিরন সরকার ১০ জনকে আসামী করে বড়াইগ্রাম থানায় হত্যা চেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা করেছেন।

মামলার আসামীরা হলেন, চান্দাই গ্রামের সাহেব আলী (৫৪), ইয়াহিয়া আলী (৪৫), জাহিদুল প্রামানিক (৪৫), নায়েব প্রামনিক (৫৬), শাকিব হোসেন (২২), সুইট হোসেন (২৩), কামরুল ইসলাম (৪০), আব্দুস সোবাহান (৫৯), সোহরাব আলী (৬০) ও দুলাল হোসেন (৪২)।

মামলা সুত্রে জানা যায়, গত ১৬ জুন বিকেলে উপজেলার রাজাপুর বাজারে  পুকুরের মাছ বিক্রয় করে বাড়ি ফিরতে মিরন সরকার। তিনি চান্দাই করিমের মোড়ে পৌঁছালে আসামীরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। খবর পেয়ে আশিক সরকার ও মিল্টন সরকার বাবাকে উদ্ধার করতে আসেন। তাদেরও মারপিট করে রক্তাক্ত জখম করে অভিযুক্তরা। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে অবস্থার অবনতি হলে আশিক সরকারকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ভর্তি করা হয়।

মিরন সরকার বলেন, আমাকে উদ্ধার করতে গিয়ে ছেলে মারা গেছে। আরেকজন মৃত্যর সঙ্গে পাঞ্জা লরছে। আমি এখন কি নিয়ে বাঁচবো।
বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ শাফিউল আযম খান বলেন, হত্যা চেষ্টার মামলাটি হত্যা মামলা হিসেবে গন্য হবে। মামলার প্রধান আসামীকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো আছে। অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।