হার দিয়ে নতুন বছর শুরু মাশরাফিদের

আপডেট: জানুয়ারি ৪, ২০১৭, ১২:১২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে নিউজিল্যান্ড। ১৪২ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ১৮ ওভারে ৬ উইকেট হাতে রেখে জয় নিশ্চিত করেছে কিউইরা।  জয়ের ফলে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেলো নিউজিল্যান্ড।
খেলতে নেমে শুরুটা দুর্দান্ত করেছিল কিউইরা। ২.৩ ওভারেই আসে ২২ রান। তবে এই ওভারেই ধাক্কা খায় নিউজিল্যান্ড। রুবেলের বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ব্রুম। ৬ রান করা এই তারকাকে দর্শনীয় ক্যাচ নিয়ে ফেরান সাকিব আল হাসান। এরপর চতুর্থ ওভারে মুস্তাফিজ এসেই আঘাত হানেন। কট বিহাইন্ড করেন নতুন নামা মুনরোকে। বিদায় নেন শূন্য রানেই।  ধীরে ধীরে কিছু রান যোগ হওয়ার পর আঘাত হানেন সাকিব আল হাসান।  ১৩ রানে ব্যাট করতে থাকা অ্যান্ডারসনকে ফেরান তিনি।  ক্যাচ নেন তামিম ইকবাল।  এরপর জুটি গড়ার চেষ্টায় ছিলেন ব্রুস ও উইলিয়ামসন।  যদিও ১১তম ওভারে দ্রুত রান নিতে গিয়ে রান আউট হয়ে বিদায় নেন ব্রুস (৭)।  এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয় নি নিউজিল্যান্ডকে।  কিউইদের টেনে তুলেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।  তার অপরাজিত ৭৩ রানে জয় পায় স্বাগতিকরা।  ৪১ রানে তাকে সঙ্গ দিয়েছেন গ্র্যান্ডহোম।  ম্যাচ সেরা হন কেন উইলিয়ামসন।
গতকাল এর আগে নিউজিল্যান্ডকে ১৪২ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দেয় বাংলাদেশ। টস জিতে ব্যাট করে ৮ উইকেটে ১৪১ রান সংগ্রহ করে টাইগাররা। যদিও শুরুর দিকে দ্রুত উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়েই ছিল মাশরাফি বাহিনী। সেখান থেকে হাফসেঞ্চুরি করে দলকে ভালো সংগ্রহ পাইয়ে দেন মাহমুদউল্লাহ। যদিও শুরুর দিকে চিত্রগুলো ছিল ব্যতিক্রম। খেলতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই ফিরে যান ইমরুল কায়েস। ১.৩ বলে হেনরির বলে লাইনের বাইরে খেলতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন ইমরুল। ফেরেন রানের খাতা না খুলেই।  ইমরুল ফিরলে টিকতে পারেননি তামিমও। পঞ্চম ওভারে অভিষেক হওয়া হুইলারের বলে হুক করতে গিয়ে তালুবন্দী হন তামিম ইকবাল। বিদায় নেন ১১ রানে। তামিমের বিদায়ে ভূমিকা ছিল কালকে অভিষেক হওয়া ব্রুস ও হুইলারের। ব্রুসের হাতেই ক্যাচ দেন তামিম। এরপর হঠাতই বোলিং জাদু দেখান অভিষেক হওয়া আরেক পেসার ফার্গুসন।  পর পর জোড়া আঘাতে ফেরেন সাব্বির (১৬) ও সৌম্য সরকার (০)।  ফার্গুসন দ্বিতীয় বোলার হিসেবে করেছেন দুর্দান্ত এক কীর্তি। টি-টোয়েন্টিতে নিজের প্রথম ম্যাচের প্রথম দুই বলেই উইকেট পেয়েছেন এই পেসার। ৩০ রানে ৪ উইকেট যাওয়ার পর একটু খানি মাথা তুলে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছিলেন মাহমুদউল্লাহ ও সাকিব। ৫ম উইকেটে ৩৭ রান আসে এই জুটিতে। তবে ১১তম ওভারে ১৪ রানে ব্যাট করতে থাকা সাকিবকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙেন গ্র্যান্ডহোম। তারপরেও থেমে থাকেন নি ওয়ানডেতে নিজের ছায়া হলে খেলা মাহমুদউল্লাহ। ষষ্ঠ উইকেটে তরুণ মোসাদ্দেককে নিয়ে যোগ করেন আরো ৩২ রান। দলীয় ৯৯ রানে মোসাদ্দেককে ফিরিয়ে ফের জুটি ভাঙেন স্যান্টনার। মোসাদ্দেক ফেরেন ২০ রানে। এরপর ১ রানে ফেরেন অধিনায়ক মাশরাফি। দলকে ভালো সংগ্রহ পাইয়ে দেয়া মাহমুদউল্লাহ ফেরেন শেষ ওভারেই। ৫২ রানে ফার্গুসনের বলে বোল্ড হন তিনি। শেষ দিকে অপরাজিত ছিলেন নুরুল হাসান (৬) ও রুবেল (১)। এই ম্যাচে কিউইদের দলে অভিষেক হয়েছে তিন জনের। টম ব্রুস, ফার্গুসন ও হুইলার সুযোগ পেয়েছেন প্রথম ম্যাচে। তারাই মূলত আলো ছড়িয়েছেন নেপিয়ারে।- বাংলা ট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ