হিজাব পরায় লাথি নারীকে

আপডেট: জানুয়ারি ২৮, ২০১৭, ১২:১১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


হিজাব পরায় হেনস্থা হতে হল এক মার্কিন নারী বিমানকর্মীকে। বুধবার নিউ ইয়র্কের জন এফ কেনেডি আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে ডেল্টা এয়ারলাইন্সের কর্মী রাবেয়া খান নিয়ম মাফিক অফিসে বসে ছিলেন। হঠাৎই তাঁর ওপর চড়াও হয় বছর ৫৭–এর রবিন রোডস। প্রথমে দরজায় ধাক্কা দিতে থাকে। আর চিৎকার করে বলতে থাকে, ‘আপনি কি ঘুমোচ্ছেন? আপনি কি প্রার্থনা করছেন? কী করছেন ভিতরে বসে?’, এই প্রশ্নের সঙ্গে সঙ্গেই চলতে থাকে দরজায় ধাক্কা মারা। এমন সময় রাবেয়া রবিনকে প্রশ্ন করেন, ‘আমি কী করেছি?’ রবিন বলেন, ‘কিছুই না, তবু আপনাকে আমি লাথি মারব’। বলেই রাবেয়ার পিছনের পায়ে সজোরে লাথি মারে সে। বেশ কয়েক ঘা দিয়ে দেয়ার পর রাবেয়া যাতে পালাতে না পারে, সেই জন্য রাস্তাও আটকে রাখে। আর চিৎকার করে বলতে থাকে ‘সাবধান মুসলিমরা, সাবধান আইএসআইএস। এখন ক্ষমতায় রয়েছেন ট্রাম্প। জঙ্গিদের হাতে থেকে মুক্তি দিতে তিনিই যথেষ্ট। জার্মানি, ফ্রান্স বা বেলজিয়ামে গিয়ে থাকবেন এঁরা। আমেরিকায় নয়।’ যদিও গোটা ঘটমার পরেই গ্রেপ্তার করা হয় ওই ব্যক্তিকে। একাধিক ধারায় মামলাও রুজু করা হয়। বিমান সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, গোটা ঘটনাই লজ্জার। তদন্ত করা হবে, শাস্তি পাবেন অভিযুক্ত। – আজকাল

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ