হিপ-হপের তালে গণিত শিক্ষা

আপডেট: এপ্রিল ১১, ২০১৭, ১২:২২ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



গণিত ভীতি কম বেশি সকল ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে বিদ্যমান। তাই সহজে গণিত  শেখার জন্য ছাত্র-ছাত্রীরা নানা রকম সহজ পদ্ধতি অবলম্বন করে। কিন্তু গান শোনার মধ্যে দিয়ে গণিত শেখার কথা হয়ত কেউ  স্বপ্নেও ভাবে না। কারণ গান ও গণিত দুটি দুই মেরুর বাসিন্দা। তবে এই দুই মেরুর বাসিন্দাকে এক করে গণিত শেখার এক চমৎকার উপায় বের করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার কেপ টাউনের ইবেন ডনজেস হাই স্কুলের গণিতের শিক্ষক কুর্ট মিন্নার।
অনেকেই হয়তো ভ্রূকুটি করছেন, ভাবছেন গান শোনার মধ্যে দিয়ে গণিত শেখা কি আদৌ সম্ভব? কিন্তু এই অসম্ভব কাজটিই সম্ভব করেছেন মিন্নার।
৩৩ বছর বয়সি সাবেক এই হিপ-হপ শিল্পী ও কোরিওগ্রাফার হিপ-হপ গান ও নাচের মাধ্যমে বেশ চমৎকার ভাবেই তার ছাত্র-ছাত্রীদের গণিত শেখাচ্ছেন। ইতিমধ্যে কেপ টাউনে কুর্ট মিন্নারের এই পদ্ধতিটি বেশ সাড়া ফেলেছে।
ডেইলি ভয়েস-এ দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মিন্নার বলেন, ‘গণিত শেখার ক্লাসগুলো সবসময় খুবই গতানুগতিক ও বিরক্তিকর হয়। আমি আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকে জানি গণিত শিখতে গিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের কী পরিমাণ মানসিক ধকল সহ্য করতে হয়। তাই কীভাবে গতানুগতিক পদ্ধতির বাইরে সহজে ও আনন্দদায়ক উপায়ে গণিত শেখানো যায়, সেই ভাবনা থেকেই মূলত আমার এই প্রচেষ্টা।’
তিনি আরো বলেন, ‘আমি গ্রেড-৮ এর (অষ্টম শ্রেণি) ক্লাস নিই। গণিত ক্লাস নিতে গিয়ে আমি দেখছি বাচ্চারা অষ্টম শ্রেণীতে পড়লেও গণিত শেখার ক্ষেত্রে তারা গ্রেড-৪ ( চতুর্থ শ্রেণির) বাচ্চাদের মতো। ফলে আমি চাইছিলাম এমন একটি পদ্ধতি আবিষ্কার করতে যেখানে বাচ্চারা মজায় মজায় গণিত শিখবে।’
হিপ-হপ গান ও নাচের সাথে মিন্নারের গণিত শেখানোর এই প্রচেষ্টা কিন্তু শতভাগ সফল। আগের থেকে তার ক্লাসে উপস্থিতি বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় শতভাগ এবং শিক্ষার্থীদের মনোযোগ ও শেখার আগ্রহ বেড়েছে আগের থেকে অনেক বেশি।
এই সফলতা থেকে মিন্নার আরো অনুপ্রাণিত হয়েছেন। তিনি ইতিমধ্যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে তার কোর্স কারিকুলামকে আরো বৃদ্ধি করবেন। তিনি বলেন, ‘আমি স্বপ্ন দেখি প্রতিটি ক্লাসের সকল শিক্ষার্থী প্রথাগত শিক্ষাব্যবস্থার বাইরে শুধু গণিত নয় সকল বিষয় অত্যন্ত আনন্দের সাথে জানবে ও শিখবে।’

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ