১৬ দিনেও খোঁজ মেলিনি স্বাস্থ্যকর্মীর, পুঠিয়া থানায় ডায়েরি

আপডেট: এপ্রিল ১৭, ২০২১, ৯:৩৫ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


রাজশাহীর পুঠিয়ার বে-সরকারি এক প্যাথলজির স্বাস্থ্যকর্মীর নিখোঁজের ১৬ দিনেও খোঁজ মিলছে না। নিখোঁজ স্বাস্থ্যকর্মী রুবিনা খাতুন (১৭) ২ এপ্রিল ১০ টায় বাসা থেকে নিজ কর্মস্থলে বের হন। এরপর থেকে তিনি আর বাড়ি ফেরেননি। এ ঘটনায় মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) নিখোঁজ তরুণীর মা পুঠিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। নিখোঁজ ওই কিশোরীর বাড়ি চারঘাট উপজেলার বালাদিয়া গ্রামে। সে পুঠিয়া উপজেলা সদরের অবস্থিত সাথী প্যাথলজি ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আয়া হিসাবে কাজ করতো। গত ২ এপ্রিল সকালে কাজে আসার পর থেকে সে নিখোঁজ রয়েছে। নিখোঁজ কিশোরীর মা বলেন, প্রতিদিনের মত গত ২ এপ্রিল সকাল ১০ টার দিকে সাথী প্যাথলজি ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে কাজে যাওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়। এরপর আর বাড়ি আসেনি। আমরা পরেরদিন ৩ এপ্রিল ওই প্যাথলজিতে গিয়ে খোঁজ করেছি। সেখানে মালিকরা বলেছে আমার মেয়ে নাকি সেখানে আর কাজ করে না। ওইদিনের পর থেকে তার ফোনও বন্ধ রয়েছে। বিভিন্ন আত্মীয়-স্বজনদের নিকট খোঁজ-খবর করেও তার কোনো সন্ধান পাইনি। যার কারণে গত মঙ্গলবার থানায় একটি জিডি করেছি। সাথী প্যাথলজি ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মশিউর রহমান উজ্জল বলেন, ওই মেয়ে এখানে শুধুমাত্র ফেব্রুয়ারি মাস কাজ করেছে। এরপর সে গত পহেলা মার্চ থেকে অপরাজিতা ফ্যাশান হাউজে কাজ শুরু করে বলে জানি। তার পর থেকে তার নিখোঁজের বিষয়ে আমরা কিছুই জানি না। পুঠিয়া থানার ওসি সোহরাওয়ার্দী বলেন, ওই কিশোরীর মা গত দুপুরে (১৩ এপ্রিল) থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছে। বিষয়টি আমরা গুরুত্বের সাথে উদ্ধারের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। তার ফোন নম্বরটি ও বিভিন্ন সূত্রে তার খোঁজ করার চেষ্টা করছি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ