১৭৫ বছরের মধ্যে সবচেয়ে উষ্ণতম জানুয়ারি মাস

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২৪, ১:৫৩ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক :জলবায়ু পরিবর্তনসহ মানবসৃষ্ট নানা কারণে বাড়ছে পৃথিবীর তাপমাত্রা। এর মধ্যে এ বছরের জানুয়ারি ছিল ১৭৫ বছরের মধ্যে সবচেয়ে উষ্ণতম জানুয়ারি মাস। বৃহস্পতিবার (৮ জানুয়ারি) ইউরোপীয় ইউনিয়নের কোপার্নিকাস ক্লাইমেট চেঞ্জ সার্ভিসের (সিথ্রিএস) তথ্যের বরাতে এ খবর জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

১৮৫০ সাল থেকে বিশ্বে তাপমাত্রার রেকর্ড রাখছে সিথ্রিএস। প্রতিষ্ঠানটির দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এর আগে ২০২০ সালে জানুয়ারি মাস ছিল সবচেয়ে উষ্ণ। ১৮৫০ সালের পর পৃথিবীর উষ্ণতম বছরের রেকর্ডে ২০২৩ সাল স্থান পায়। বিগত বছরগুলোর তুলনায় ২০২৩ সালের জুনের পর থেকে প্রতিটি মাসই বিশ্বের সবচেয়ে উষ্ণতম মাসের রেকর্ড গড়েছে। এ বিষয়ে সিথ্রিএসের ডেপুটি ডিরেক্টর সামান্থা বার্গেস বলেন, ‘গ্রিনহাউস গ্যাস নির্গমন দ্রুত হ্রাস করা ছাড়া বৈশ্বিক তাপমাত্রা বৃদ্ধির বিষয়টি থামানো যাবে না।’

মার্কিন বিজ্ঞানীরা পূর্বাভাস দিয়েছেন, গত বছরের তুলনায় এ বছরটি আরও বেশি উষ্ণ হবে। শীর্ষ পাঁচটি উষ্ণতম বছরের তালিকায় ২০২৪ সালের স্থান পাওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে ৯৯%। রয়টার্স জানিয়েছে, এই উষ্ণতা মানুষের কার্যকলাপ থেকে হওয়া ধারাবাহিক গ্রিনহাউস গ্যাস নির্গমণের ফল, এর সঙ্গে যোগ হয়েছে চলতি বছরের এল নিনো আবহাওয়ার ধরন, যা প্রশান্ত মহাসাগরের পূর্বাংশের উপরিতলের পানিকে উষ্ণ করে তুলেছে।

জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবিলায় ২০১৫ সালে প্যারিস চুক্তি নামে একটি জলবায়ু চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন বিশ্ব নেতারা। এই চুক্তির আওতায় দেশগুলো বৈশ্বিক উষ্ণতা ১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস অতিক্রম করা প্রতিরোধে একসঙ্গে কাজ করতে সম্মত হয়। তবে এখনও প্যারিস চুক্তির লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে পারেনি বিশ্ব। গত বছরই বৈশ্বিক তাপমাত্রাকে টানা ১২ মাস ১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস অতিক্রম করতে দেখেছে বিশ্ববাসী।- ঢাকা ট্রিবিউন