১৯ হাজার কোটির মাদক আদানিদের বন্দরে এসেছিল আফগানিস্তান থেকে! চক্ষু চড়কগাছ গোয়েন্দাদের

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২১, ২০২১, ৯:০৭ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


১৯ হাজার কোটি মূল্যের প্রায় তিন টন হেরোইন বাজেয়াপ্ত হল গুজরাতের মুন্দ্রা বন্দরে। এই বন্দরটি পরিচালনা করে আদানি গোষ্ঠী। সোমবার আদানিদের বন্দর থেকে ওই মাদক বাজেয়াপ্ত করেন রাজস্ব নির্দেশনালয়ের গোয়েন্দা বিভাগের (ডিআরআই) আধিকারিকরা। মাদক-সহ গ্রেফতার হয়েছেন দুই ব্যক্তি।

ডিআরআই সূত্রে খবর, মুন্দ্রা বন্দরে দু’টি কন্টেনার এসেছিল। কন্টেনার দু’টি পাউডার দিয়ে চিহ্নিত করা ছিল। কেন চিহ্নিত করা তা নিয়ে সন্দেহ হয় ডিআরআই-এর আধিকারিকদের। তখনই তাঁরা কন্টেনার দু’টি আটক করেন।

সেই কন্টেনার খুলতেই আধিকারিকদের চোখ কপালে ওঠার অবস্থা হয়। দেখা যায়, একটি কন্টেনারে ঠাসা রয়েছে দু’হাজার কেজি মাদক। অন্যটিতে এক হাজার কেজি। ওই মাদক আফগানিস্তানের। সেগুলি ইরান থেকে কন্টেনারবন্দি করে জাহাজে তোলা হয়। ডিআরআই জানিয়েছে, যে পরিমাণ মাদক ধরা পড়েছে তার বর্তমান বাজারমূল্য ১৯ হাজার ৯০০ কোটি টাকা।

গুজরাতে এই বিপুল পরিমাণ মাদক উদ্ধার হওয়ার পরই আমদাবাদ, দিল্লি, চেন্নাই, গাঁধীধাম এবং মা-বীতে তল্লাশি চালাচ্ছেন ডিআরআই-এর আধিকারিকরা। এই বিপুল পরিমাণ মাদক কোথায় পাচার হচ্ছিল তা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে ডিআরআই।
বিশ্বের সবচেয়ে বড় হেরোইন উৎপাদক দেশ আফগানিস্তান। বিশ্বের মোট উৎপাদনের ৮০-৯০ শতাংশ এই দেশ থেকেই ছড়িয়ে পড়ে বিভিন্ন জায়গায়। তালিবান ক্ষমতায় আসার পর থেকেই আফগানিস্তানে এই মাদকের উৎপাদন বহু গুণ বেড়ে গিয়েছে বলে বিভিন্ন রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে।
তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ