১ ডিসেম্বর থেকে রাজশাহীর ৮ জেলায় পরিবহন ধর্মঘট

আপডেট: নভেম্বর ২৭, ২০২২, ১২:২৭ পূর্বাহ্ণ

নাটোর প্রতিনিধি :


১০ দফা দাবি আদায় না হলে ১ ডিসেম্বর থেকে রাজশাহী বিভাগের ৮ জেলায় পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা দেয়া হয়েছে। শনিবার (২৬ নভেম্বর) বিকেল চার টায় নাটোরে অনুষ্ঠিত বিভাগীয় মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের যৌথ সভা এমন ঘোষণা দেয়া হয়। এসময় জানানো হয়- আগামি ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে দাবি আদায়ের লক্ষ্যে। ধর্মঘটের আওতায় থাকবে রাজশাহী, নটোরে, চাপাইনবাবগঞ্জ, নওগাঁ, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, পাবনা ও বগুড়া জেলা।

১০ দফা দাবিগুলো হলো- ‘সড়কে পরিবজন আইন-২০১৮ সংশোধন করতে হবে। হাইকোর্টের নির্দেশ অমান্য করে মহাসড়ক বা আঞ্চলিক মহাসড়কে থ্রি-হুইলার (লসিমন, করিমন, ভুটভুটি, সিএনচি, ব্যাটারি চালিত অটো রিক্সা ইত্যাদি) চলাচল বন্ধ করতে হবে। জ্বালানী তেল ও যন্ত্রাংশের অস্বাভাবিক মূল্য হ্রাস করতে হবে। করোনাকালীন সময় গাড়ী চলাচল না করায় সকল প্রকার প্রদানকৃত ট্যাক্স মওকুফ করতে হবে। সকল প্রকার সরকারী পাওনাদির (ট্যাক্স, টোকেন, ফিটনেস) অস্বাভাবিক হার বৃদ্ধি বন্ধ করতে হবে।

চালকদের ড্রাইভিং লাইসেন্স সংক্রান্ত নানাবিধ জটিলতা নিরসন করতে হবে। পরিবহনের যাবতীয় কাগজপত্রাদি বা সঠিক থাকা সত্বেও নানাবিধ পুলিশি হয়রানি বন্ধ করতে হবে। উপজেলা পর্যায়ে বিআরটিসি চলাচল অতিসত্বর বন্ধ করতে হবে। ডিপো টু ডিপো চলাচল করতে পারবে। মহাসড়কে হাট-বাজার আয়োজন বা পরিচালনা করা যাবে না। চলমান হাট বাজার অতিসত্বর উচ্ছেদ করতে হবে। যাত্রী ইঠা-নামানোর জন্য পার্কিং এর ব্যবস্থা করতে হবে। প্রত্যেক জেলায় ট্রাক টার্মিণাল নির্মাণ ও ট্রাক ওভারলোড বন্ধ করতে হবে।’
নাটোরের কানাইখালী এলাকায় আরপি কমিউনিটি সেন্টারে নাটোর জেলা বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সার্বিক ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন, রাজশাহী বিভাগীয় সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক পরিষদ সভাপতি সাফকাত মঞ্জুর বিপ্লব। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজান।

সভায় বক্তব্য দেন, বগুড়া বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, পাবনা মোটর মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক মোমিন, সিরাজগঞ্জ বাস কোচ মালিক সমিতির সভাপতি আতিকুল ইসলাম আতিক, চাপাঁইনবাবগঞ্জ মালিক সমিতির সভাপতি আমিনুল ইসলাম সেন্টু, নাটোর জেলা পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি কামরুল ইসলাম, বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি লক্ষণ পোদ্দার, সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান প্রমুখ। সভায় রাজশাহী বিভাগের আট জেলার মালিক-শ্রমিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

লিখিত বকব্য পাঠ করেন, রাজশাহী বিভাগীয় সড়ক পরিবহন মালিক শ্রমিক পরিষদ সভাপতি সাফকাত মঞ্জুর বিপ্লব।
আগামি ১ ডিসেম্বর ভোর ৬ টা থেকে রাজশাহী বিভাগের সকল জেলার বাস-ট্রাক (যাত্রীবাহী ও পণ্য পরিবহন) চলাচল অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ থাকবে।

ধর্মঘটের বিষয়ে বিএনপি কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু অভিযোগ করেন, আগামী ৩ ডিসেম্বরের গণসমাবেশ বাধা দিতেই এই ধর্মঘট ডাকা হয়েছে। কুমিল্লায় ধর্মঘট না দেওয়ায় আমরা ভেবেছিলাম মালিক শ্রমিকদের মধ্যে শুভবৃদ্ধির উদয় হয়েছে। কিন্তু রাজশাহী বিভাগে তারা সরকারের চাপে এই ধর্মঘট ডেকেছে। এই ধর্মঘটকে উপেক্ষা করেই নেতাকর্মীরা বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা থেকে আসতে শুরু করবে। কোন বাধা গণসমাবেশকে আটকাতে পারবে না।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ