২১ মার্চ

আপডেট: মার্চ ২১, ২০২১, ১২:২২ পূর্বাহ্ণ

২১ মার্চ ১৯৪৮ : পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ রমনা রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) একটি জনসভায় ঘোষণা করেছিলেন যে, ‘‘উর্দু এবং কেবল উর্দুই হবে পাকিস্তানের রাষ্ট্র ভাষা। অন্য কোনও ভাষা নয়, কেবল উর্দুই মুসলিম জাতির চেতনাকে মূর্ত করে তোলে, তাই উর্দুই পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা হিসেবে থাকবে।”
জিন্নাহ্র এই উক্তির সাথে সাথেই জনতার মধ্যে থেকে প্রতিবাদ উঠেছিল। অনেকের মতে সেদিনকার তরুণ নেতা শেখ মুজিব সকলের আগে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ করে বলেছিলেন, ‘‘না, বাংলাকেই রাষ্ট্রভাষা করতে হবে।’’
সেদিনই সন্ধ্যাবেলা কার্জন হলে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে এই উক্তির প্রতিবাদ হয়েছিল।
২১ মার্চ ১৯৭১ : একটি লিখিত বাণীতে বঙ্গবন্ধু বলেন, ‘‘ লক্ষ্য অর্জনের জন্য যেকোনো ত্যাগ স্বীকারে আমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে। ঘরে ঘরে দুর্গ গড়ে তুলতে হবে- প্রতিরোধের দুর্গ। আমাদের দাবি ন্যায়সঙ্গত। তাই সাফল্য আমাদের সুনিশ্চিত। একটি ঐক্যবদ্ধ জাতিকে বেয়নেট ও বুলেট দিয়ে দাবিয়ে রাখা যাবে না। জয়বাংলা।’’
২১ মার্চ ১৯৭১ : কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে (সামরিক বাহিনী বেষ্টিত) পাকিস্তান পিপলস পার্টির প্রধান জুলফিকার আলী ভূট্টো ঢাকায় আসেন বঙ্গবন্ধুর সাথে আরেক দফা আলোচনা করতে। আলোচনা শুরুও হয়। কিন্তু ফলপ্রসূ কোনো অগ্রগতি তাতেও পাওয়া যায়নি।
এদিন এক সভায় মাওলানা ভাসানী ২০ মার্চ দেয়া সংবাদ সম্মেলনের দাবি পুনরায় তুলে ধরেন।