২৬ জুলাই

আপডেট: July 26, 2020, 12:07 am

২৬ জুলাই ১৯৬৪ : বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে সম্মিলিত বিরোধী দল-কঅপ (কম্বাইন্ড অপজিশন পার্টি গঠিত হয়)।
২৬ জুলাই ১৯৬৫ : রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে কঅপ এর পক্ষ থেকে মিস ফাতিমা জিন্নাহ (পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আলী জিন্নাহর বোন) কে প্রার্থী দেওয়া হয়। বঙ্গবন্ধু ফাতিমা জিন্নাহর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেয়।
২৬ জুলাই ১৯৬৬ : বঙ্গবন্ধু কারাগারে বসে লিখেছেন, “আজ নিশ্চয়ই ‘দেখা’। ছেলেমেয়ে নিয়ে রেণু আসবে যদি দয়া করে অনুমতি দেয়। পনের দিনতো হতে চলল, দিন কি কাটতে চায়, বার বার ঘড়ি দেখি কখন চারটা বাজবে। দুপুরটা তো কোনমতে কাগজ নিয়ে চলে যায়। এত দূর্বল হয়ে পড়েছি যে, হাটতে আজ আর ইচ্ছা হয় না। সাড়ে চারটার সময় আমাকে নিতে আসল সিপাহি সাহেব। একসাথে দুইটা দেখার অনুমতি, আমার কোম্পানির ম্যানেজার ও একাউনটেন্টও এসেছে ব্যবসা বাণিজ্য নিয়ে কিছু আলোচনা করার জন্য। দূর থেকেই ছোট্ট বাচ্চাটা ‘আব্বা, আব্বা’ করে ডাকতে শুরু করে। এইটাই আমাকে বেশি আঘাত দেয়। দুইজন করে অফিসার পাঠায়। এরা জানে আমার স্ত্রী ও ছেলেমেয়েরা রাজনীতির ধার ধারে না। এদর সাথে আলোচনা ঘর সংসারের। মা কিছুটা ভাল আছেন, আব্বা খুলনায় গেছেন, আমার ছোট ভাইয়ের ছেলেমেয়েরা কেমন, সংসার কেমন চলছে- অর্থাভাব হবে কি না? উপার্জন কম করি নাই, তবে খরচ করে ফেলেছি। এই সমস্ত ঘরোয়া কথাবার্তা। বেচারা কর্মচারীরা বোধহয় লজ্জাও পায়। কি শুনবে বসে বসে। রেণুকে বললাম মোটা হয়ে চলেছি, কি যে করি। অনেক খাবার নিয়ে আসে। কি যে করব বুঝি না। রেণু আমার বড় মেয়ের বিবাহ প্রস্তাব এনেছে, তাই বলতে শুরু করল। আমার মতামত চায়। বললাম, ‘জেল থেকে কি মতামত দেব আর ও পড়তেছে পড়ুক, আইএ, বিএ, পাশ করুক। তারপরে দেখা যাবে।’ রেণু ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। কতদিন যে আমাকে রাখবে কি করে বলব! মনে হয় অনেকদিন এরা আমায় রাখবে। আর আমিও প্রস্তুত হয়ে আছি। বড় কারাগার থেকে ছোট কারাগার, এই তো পার্থক্য।” [সূত্র : কারাগারের রোজনামচা – শেখ মুজিবুর রহমান, পৃষ্ঠা ১৮০-১৮১]
২৬ জুলাই ১৯৭২ : সংবিধানের শিক্ষা সংক্রান্ত মূলনীতির আলোকে বঙ্গবন্ধু সরকার প্রখ্যাত বিজ্ঞানী ড, কুদরত এ খুদার নেতৃত্বে শিক্ষা কমিশন গঠন করে।