৩০ বছর পর আজহারের কষ্টটা বুঝলেন রাহুল

আপডেট: ডিসেম্বর ১৯, ২০১৬, ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



অফ স্টাম্পের বেশ বাইরে আদিল রশিদের বল। খেলবেন ভেবে লোকেশ রাহুল ব্যাট চালালেন। ঠিকমতো হলো না শটটা। রান তো হলোই না, সরাসরি কাভার পয়েন্ট জশ বাটলারের হাতে বল। ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ১ রান দূরে ছিলেন রাহুল। ডাবল সেঞ্চুরি তো পেলেন না, টেস্ট ইতিহাসের দ্বিতীয় ভারতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হয়ে গেলেন ১৯৯ রানে।
প্রায় ৩০ বছর আগে এই ভারতের মাটিতেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১৯৯ রানে আউট হয়েছিলেন মোহাম্মদ আজহারউদিন। ১৯৮৬ সালে কানপুরে সেই দিনটা ছিল ১৭ ডিসেম্বর। আর রাহুলের ক্যারিয়ারে আক্ষেপের দিন হয়ে থাকবে ১৮ ডিসেম্বর! ডাবল সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ১ রান দূরে আউট হওয়ার এই কষ্ট টেস্ট ইতিহাসে আছে মাত্র ৯ জনের। আর দুজন খেলোয়াড়ের দুঃখটা হয়তো আরও বেশি। তাঁরা যে সঙ্গীর অভাবে অপরাজিত ছিলেন ১৯৯ রানে। সেই দুই অভাগার নাম অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার ও কুমার সাঙ্গাকারা।
রাহুলের ডাবল সেঞ্চুরি না পাওয়ার এই আক্ষেপটুকু বাদ দিলে চেন্নাইয়ের চিদাম্বরম স্টেডিয়ামে আজ দিনটা শুধুই ভারতের। প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের ৪৭৭ রানের জবাবে আজ তৃতীয় দিন শেষে ৪ উইকেটে ৩৯১ রান তুলেছে ভারত।
বিনা উইকেটে ৬০ রান নিয়ে দিন শুরু করা ভারত মধ্যাহ্ন বিরতিতে যায় ১ উইকেটে ১৭৩ রান নিয়ে। আগের দিন ২৮ রানে অপরাজিত থাকা পার্থিব প্যাটেল লাঞ্চের মিনিট বিশেক আগে ৭১ রানে আউট হয়ে যান মঈন আলীর বলে বাটলারের হাতে ক্যাচ দিয়ে। ১৫২ রানের জুটি ভাঙার পর চেতেশ্বর পূজারা আর বিরাট কোহলিকে নিয়ে বড় জুটি গড়ার চেষ্টা করেছেন রাহুল, কোনোটাই জমেনি। তবে এর মধ্যেই টেস্ট ক্যারিয়ারের চতুর্থ সেঞ্চুরিটা পেয়ে যান রাহুল।
ভারতীয় ওপেনারকে যোগ্য সঙ্গ আসলে দিয়েছেন করুণ নায়ার। চতুর্থ উইকেটে দুজনের ১৬১ রানের জুটি বেশ ভুগিয়েছে ইংলিশ বোলারদের। দিনের খেলা মাত্র ৫ ওভারের মতো বাকি থাকতে রাহুল ওইভাবে আউট হয়ে না গেলে সেই ভোগান্তি আরও বাড়তেই পারত। অবশ্য নায়ার কিন্তু দিন শেষেও অপরাজিত রয়ে গেছেন ৭১ রানে। ক্রিকইনফো।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ