৪৪ হাজার বিয়ের প্রস্তাব পেলেন বিহারের উপ-মুখ্যমন্ত্রী

আপডেট: অক্টোবর ২১, ২০১৬, ১০:২৮ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক
যে কোনও প্রশাসনিক সমস্যা, রাস্তার বেহাল দশা কিংবা চিকিৎসা ক্ষেত্রে গাফিলতির সম্মুখিন হলে একটি নম্বরে হোয়াটসঅ্যাপ করে নিজেদের অভিযোগ দাখিল করার কথা রাজ্যবাসীকে বলেছিলেন বিহারের উপ-মুখ্যমন্ত্রী তেজস্বী যাদব। কিন্তু তাঁর এই মানবসেবাই আপাতভাবে সমস্যা ডেকে আনল মন্ত্রীর জীবনে। হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজে তিনি প্রশাসনিক সমস্যার অভিযোগের পরিবর্তে পেলেন বিয়ের প্রস্তাব। একটি কিংবা দু’টি নয়। রীতিমতো ৪৪ হাজার বিবাহ প্রস্তাব পেলেন লালু প্রসাদ যাদবের ছেলে তেজস্বী। অনুপমা, প্রিয়া, কাঞ্চন, দেবিকার মতো বহু নারীই মন্ত্রীকে প্রেম এবং বিবাহ প্রস্তাব দিয়েছেন।

 

আর খুব আশ্চর্যভাবেই তাঁরা ভেবেছেন এই হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজগুলি বুঝি সোজা গিয়ে তাঁদের স্বপ্নের পুরুষের কাছে পৌঁছবে। কিন্তু বাস্তবে স্বভাবতই এমনটা হয়নি। তাঁদের পাঠানো এই বার্তা গিয়ে তাঁর দফতরের কর্মীর হাতে পৌঁছেছে। আর এই বার্তার খবর প্রকাশ্যে আসতেই হাসির রোল উঠেছে চারদিকে।

 
জানা গিয়েছে ওই হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে মোট ৪৭,০০০ বার্তা এসেছে। কিন্তু তারমধ্যে ৪৪,০০০ বার্তাই বিয়ের প্রস্তাব। মাত্র ৩,০০০ বার্তা অভিযোগ সংক্রান্ত। এই বিষয়ে আরজেডি’র উত্তরসূরিকে প্রশ্ন করা হলে তিনি মজা করে বলেন, “আমি বিবাহিত হলে এই বিষয়টি নিয়ে সমস্যা হত বাড়িতে। কিন্তু আমি এখনও সিঙ্গল।” ‘বিয়ের কথা ভাবছেন?’ প্রশ্নের উত্তরে লাজুক ২৬ বছরের মন্ত্রীর উত্তর, “বিয়ে তো করব। কিন্তু পরিবারের সদস্যরা যাঁকে পছন্দ করবেন, তাকেই জীবনসঙ্গী হিসাবে দেখতে চাই।”- সংবাদ প্রতিদিন