৬ মাস ঘুরেও নিজেকে ‘জীবিত’ প্রমাণ করতে পারছেন না জোহুরা

আপডেট: এপ্রিল ১৯, ২০২১, ৮:৫২ অপরাহ্ণ

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি:


পাবনার ঈশ্বরদীতে ফাতেমাতুজ জোহুরা নামের ৬৯ বছর বয়সি এক নারী ৬ মাস ধরে ঘুরে ঘুরেও নিজেকে জীবিত প্রমাণ করতে পারেন নি। জাতীয় পরিচয়পত্রে নাম-ঠিকানাসহ সব তথ্য ঠিক থাকলেও নির্বাচন অফিসের অনলাইন সার্ভারে তার নামের আগে ‘মৃত’ শব্দটি থাকার কারণে ঘটছে এই বিপত্তি ও বিড়ম্বনা। ভোটার তালিকায় ভুলবশতঃ তার নামের আগে মৃত শব্দ যুক্ত হওয়ার কারণে বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনসহ কোনো নির্বাচনে ভোটও দিতে পারেন নি তিনি। আবার করোনার টিকা গ্রহণের জন্য আবেদন করেও টিকা নিতে পারছেন না এই নারী। উপজেলা নির্বাচন অফিসে বারবার ঘুরেও তিনি নিজেকে জীবিত প্রমাণ করতে পারেননি। লিখিত আবেদন করলেও তাকে প্রতিবারই ‘২ মাস পরে আসেন’ বলে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।
গত বছরের ২৮ অক্টোবর ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাচন অফিসার বরাবর লিখিত আবেদন করেন তিনি। এ পর্যন্ত তিনি ২ মাস পর পর ৩ বার গিয়েছেন কিন্তু ভোটার তালিকায় এখনো তিনি ‘মৃত’ ই রয়েছেন। ঈশ্বরদী পৌরসভার স্কুলপাড়া শিশুবাগান এলাকার মৃত আবুল হোসেনের স্ত্রী ফাতেমাতুজ জহুরা অভিযোগ করে বলেন, জীবিত থাকার পরও আমার নামের আগে মৃত শব্দটি থাকার কারণে আমি সকল নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছি। এই বয়সে আমার করোনা টিকা নেওয়া খুবই জরুরি কিন্তু সার্ভারে মৃত হিসেবে উল্লেখ থাকার কারণে করোনার টিকাও গ্রহণ করতে পারছিনা। এটা আমার জন্য চরম ভোগান্তির ব্যাপার। তিনি অভিযোগ করে বলেন, বারবার ধর্না দিয়েও নিজেকে জীবিত প্রমাণ করতে পারছি না এর চেয়ে দুঃখ আর কী হতে পারে? এ বিষয়ে ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাচন অফিসার রায়হান কুদ্দুস আবেদন পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, আমরা চেষ্টা করছি বিষয়টি সমাধান করবার জন্য।