৮৩ বছরের বৃদ্ধা যখন ফিটনেস আইকন

আপডেট: জুন ২২, ২০২১, ১:১৭ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


বয়স অনেকের কাছেই একটি সংখ্যা মাত্র। সেটিই বাস্তবে প্রমাণ করেছেন ভারতের চেন্নাইয়ের ৮৩ বছরের বৃদ্ধা কিরণ বাই। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে তার একটি ভিডিও বেশ ভাইরাল হয়েছে। এই বয়সেই শাড়ি পরে নিজ ঘরে ওয়েট লিফটিং করেন তিনি। যেন রীতিমতো একজন ফিটনেস আইকন।
কিরণ বাইয়ের নাতি সোশ্যাল মিডিয়ায় তার ঠাকুর মায়ের ছবি ও ভিডিও শেয়ার করেছেন। ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর সুইস প্রতিষ্ঠান এলিকো তাকে ভারোত্তোলন সামগ্রী উপহার দেয়।
এই বয়সেও দারুণ ফিট কিরণ বাই শৈশব থেকেই কাবাডি জাতীয় খেলার প্রতি বেশ আগ্রহী ছিলেন। গত বছর পড়ে গিয়ে গোড়ালিতে চোট পান তিনি। ফলে ঠিকমতো হাঁটাচলা করতে দীর্ঘ সময় লেগেছে তার। আর কখনও হাঁটতে পারবেন কিনা; এমন আশঙ্কাও চেপে বসেছিল মনে।
সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কিরণ বাই জানিয়েছেন, তার নাতি চিরাগ চর্দিয়া একজন জিম প্রশিক্ষক। এই নাতিই তাকে সারিয়ে তোলার পুরো দায়িত্ব নিয়েছিলেন। ঠাকুর মায়ের জন্য ওয়ার্কআউট পরিকল্পনা তৈরি করেন তিনি। পুরো বাড়িটিকে যেন একটি জিমে পরিণত করেন।
এরপর থেকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। তিনি সপ্তাহে তিনবার ওয়েট লিফট করেন। একটি ওয়ার্কআউট দিয়ে শুরু হয় তার সেশন। এই বছর কিরণ বাই-এর ৮৩ তম জন্মদিনে তার নাতি একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন, যেখানে তাকে ২৫ কেজি ওজন তুলতে দেখা যায়।
সংবাদমাধ্যম দ্য এনডিটিভি জানিয়েছে, বিকাল ৪টায় অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সে নিজের সপ্তম তলার বাসায় তিনি এক দফায় ব্যায়ামের প্রস্তুতি নেন। প্রথমে কিছু সময় ওয়ার্মআপ করেন। এরপর শুরু বাকি ব্যায়াম।
কিরণ বাই বলেন, ‘আমি খুব খুশি। ওয়ার্কআউট করে আমরা হাসিখুশি থাকতে পারি। বয়সের সঙ্গে এর কোনও যোগসূত্র নেই।’
কিরণ বাই-এর নাতি চিরাগ চর্দিয়া বলেন, ‘আমরা সত্যিই খুশি যে, ভিডিওটি এতো বেশি সংখ্যক মানুষের কাছে পৌঁছেছে। এটি মানুষকে আরও শক্তিশালী হতে অনুপ্রাণিত করছে। বিপুল সংখ্যক মানুষ জানতে চাইছেন আমরা কিভাবে এটি সম্ভব করেছি। তারা এ বিষয়ে সাহায্য ও পরামর্শ চাইছেন।’
এই ভিডিও যেন কিরণ বাই-কে সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো একজন তারকাতে পরিণত করেছে। এটাকে ঈশ্বরের অনুগ্রহ বলে মনে করেন তিনি। নাতিকে জড়িয়ে ধরে ছবির জন্য পোজ দিয়ে বললেন, ‘সে আমার কোচ।’
তথ্যসূত্র: কলকাতা ২৪, দ্য এনডিটিভি, বাংলাট্রিবিউন ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ