আচরণবিধি লঙ্ঘন II এমপি বাদশা ও কামালকে শোকজ

আপডেট: ডিসেম্বর ৫, ২০২৩, ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ


নিজস্ব প্রতিবেদক:


দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা এবং আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোহাম্মদ আলী কামালকে শোকজ করা হয়েছে। ফজলে হোসেন বাদশা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক।

সোমবার (৪ ডিসেম্বর) রাজশাহী-২ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান বিকাশ কুমার বসাক সই করা শোকজ নোটিশ এই দুই প্রার্থীর কাছে পাঠানো হয়েছে। একই সাথে সশরীরে উপস্থিত হয়ে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে।

এমপি ফজলে হোসেন বাদশাকে দেয়া নোটিশে বলা হয়েছে, রাজশাহী-২ আসন থেকে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মনোনিত প্রার্থী হওয়া সত্ত্বেও আপনার পক্ষে দলীয় নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করা হয়েছে। রোববার (৩ ডিসেম্বর) নগরীর ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেন। সমাবেশে আপনার পক্ষে এবং আপনার নেতৃত্বে শান্তি, সমৃদ্ধি ও উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নেয়ার আহবান জানানো হয়। সমাবেশের ফলে জনগণের চলাচলের চরম প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয় । দৈনিক পত্রিকাসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ পায়।

‘সংসদ নির্বাচনে রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর আচরণ বিধিমালা, ২০০৮’-এর ৬ (ঘ) ও ১২ নং বিধি লঙ্ঘনের দায়ে নির্বাচন কমিশনে ব্যবস্থা গ্রহনের সুপারিশ করা হবে না মর্মে আগামি বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) কার্যালয়ে সশরীরে হাজির হয়ে অথবা প্রতিনিধির মাধ্যমে লিখিত ব্যাখ্যা প্রদানের জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

আরেকটি শোকজ নোটিশে বলা হয়েছে, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল রাজশাহী-২ আসন থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী। রোববার (৩ ডিসেম্বর) শান্তি মিছিল ও সমাবেশ নিয়ে নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্ট হয়ে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে আবার জিরোপয়েন্টে গিয়ে শেষ করেন। এতে নগরীর সাধারণ জনগণের চলাচলের বিঘ্ন বা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়। সমাবেশের খবরটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ছাড়াও সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ হয়।

এমতাবস্থায়, ‘সংসদ নির্বাচনে রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর আচরণ বিধিমালা, ২০০৮’-এর ৬ (ঘ) নং বিধি লঙ্ঘনের দায়ে আপনার বিরুদ্ধে কেন নির্বাচন কমিশনে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হবে না তৎমর্মে আগামী বুধবার বিকেল সশরীরে হাজির হয়ে অথবা প্রতিনিধির মাধ্যমে লিখিত ব্যাখ্যা প্রদানের জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো।

এ বিষয়ে কথা বলার জন্য ফজলে হোসেন বাদশাকে কল দিয়ে পাওয়া যায়নি। তবে ওয়ার্কার্স পার্টির মহানগরের সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু বলেন, বিএনপি ও জামায়াতের জ্বালাও পোড়াও কর্মসূচির বিরুদ্ধে আমরা বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করছি। প্রায় প্রতিটি ওয়ার্ডে আমরা বিক্ষোভ মিছিল করছি। সেখানে আমরা কোনো ভোট চাইনি। রাজনৈতিক কর্মসূচি ছিল আমাদের।

মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল বলেন, শোকজের চিঠি পেয়েছি। আমাদের প্রতিদিন হরতাল-অবরোধের প্রতিবাদে শান্তি সমাবেশ হচ্ছে। রোববারের মিছিলে আমি ছিলাম না। মনোনয়ন যাছাই-বাছাইয়ে উপস্থিত ছিলাম। শোকজ পেয়েছি তাই এর উত্তর দেবো।